২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ঘোলাটে ॥ এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে সব স্থানে জাতীয় পার্টির প্রার্থী না থাকায় হতাশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন, আমরা এখন বিরোধী দলে আছি। কিন্তু সকল পৌরসভায় প্রার্থী দিতে পারিনি। এরচেয়ে হতাশার কিছু হতে পারে না। একারণে দলের ভাবমূর্তি মানুষের কাছে ক্ষুন্ন হবে বলেও মনে করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নবনির্বাচিত সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এরশাদের বারিধারার বাসভবনে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে এ কথা বলেন তিনি।

এর আগেও মঙ্গলবার দলের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সম্মেলনে এরশাদ একই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি নেতাকর্মী ও এমপি মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের সাথে মাঠের মানুষের কোন সম্পর্ক নেই। তোমরা মাঠের রাজনীতি কর না। সবাই ঢাকা থেকে রাজনীতি করতে চাও। কারো সঙ্গে সম্পর্ক না থাকার কারণে আমরা সব পৌরসভায় প্রার্থী দিতে পারিনি। এমপি মন্ত্রীদের কেউই একজন প্রার্থী আনতে পারেনি। যা সত্যিই খুব হতাশার।

নিজ বাস ভবনে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মত-মিনিময়ে এরশাদ বলেন, জাতীয় নির্বাচনে যেন এমন ঘটনা না ঘটে। সে জন্য এখন থেকেই যোগ্য প্রার্থী খুঁজতে বললেন তিনি।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে সব আসনে প্রার্থী দিতে হলে আমাদের ভেদাভেদ ভুলে কাজ করতে হবে। দেশের বর্তমান পরিস্থিতি ঘোলাটে। আমাদের সতর্কতার সঙ্গে পা ফেলতে হবে।

এরশাদ হতাশা প্রকাশ করে বলেন, পৌর নির্বাচনে আমরা প্রার্থী দিতে পারি না। এমন হওয়ার কথা ছিল না। জাতীয় নির্বাচনে যেন এমন ঘটনা না ঘটে। মহানগরের সকল আসনসহ সারাদেশে এখন থেকেই প্রার্থী খুঁজে বের করতে হবে। ১৫১ আসনে বিজয়ী হলে আমরা ক্ষমতায় যেতে পারবো। এখন মানুষ জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়। কিন্তু দলের নেতারা মানুষের কাছে না গেলে সমর্থন মিলবে না।

আসন্ন নির্বাচনে যে সব পৌরসভায় দলের প্রার্থী আছেন তাদের বিজয়ী করতে সব সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের এক সাথে কাজ করার আহ্বানও জানান তিনি। সৌজন্য সাক্ষাতকালে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নবনির্বাচিত সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল, জাপার যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, মো. নোমান এমপি, সুজন দে প্রমুখ।

এরপর জাতীয় সংসদ ভবনে বিরোধী দলের নেতার কার্যালয়ে রওশন এরশাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন মহানগর নেতারা। রওশন এরশাদ জাঁকজমকভাবে সম্মেলন করার জন্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও জহিরুল আলম রুবেলকে অভিনন্দন জানান।