২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সবার ঐক্যবদ্ধ চেষ্টায় দেশ এগিয়ে নেয়া সম্ভব ॥ প্রধানমন্ত্রী

সবার ঐক্যবদ্ধ চেষ্টায় দেশ এগিয়ে নেয়া সম্ভব ॥ প্রধানমন্ত্রী
  • দশ প্রতিষ্ঠানকে এ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্ঠান

বিডিনিউজ ॥ স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী উদ্যোক্তাদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দশটি প্রতিষ্ঠানকে এ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর উপলক্ষে বৃহস্পতিবার গণভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় একটি দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।

নিটোল-নিলয় গ্রুপের দেয়া ভারতের তৈরি ‘টাটা সুমো’ এ্যাম্বুলেন্সগুলো গাজীপুরের শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতাল ও নার্সিং কলেজ, শেরপুর, দিনাজপুর ও পটুয়াখালী সদর হাসপাতাল, বাগেরহাটের মংলা, রংপুরের পীরগঞ্জ, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ও খাগড়াছড়ির রামগড় এবং গোপালগঞ্জের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিদের কাছে হস্তান্তর করেন সরকার প্রধান। নিটোল-নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমেদও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, এফবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট যখন স্বাস্থ্য খাতে সহায়তা করছেন তখন অন্য ব্যবসায়ীরাও এগিয়ে আসবেন বলে আমি আশা করি। বেসরকারী উদ্যোক্তারা যদি এগিয়ে আসে- তাহলে আরও ভাল হয়।

নদীমাতৃক বাংলাদেশের জনগণের সুবিধার জন্য ওয়াটার এ্যাম্বুলেন্স বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় কিশোরগঞ্জের হাওড় এলাকার পরিস্থিতির কথাও তিনি তুলে ধরেন।

শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত দশ প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের নতুন পাওয়া এ্যাম্বুলেন্সগুলোর প্রতি ‘যতœবান’ হওয়ার তাগিদ দেন এবং নাগরিকদের স্বাস্থ্যসেবায় ব্যবহৃত যানবাহন মেরামতের জন্য বিশেষ তহবিল গঠনের কথা বলেন।

শতভাগ সৎ ব্যবহার না হলেও কিছু কাজে তো লাগবে। এ্যাম্বুলেন্সের একটি নষ্ট চাকা ঠিক করতে করতে আরও দুটো চাকা নষ্ট হয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, তৃণমূলের জনগণ যে মানবেতর জীবনযাপন করে, তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন করাই তার সরকারের লক্ষ্য।

অন্যদের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিকল্পনামন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালিক এবং টাটা মোটরস লিমিটেডের আন্তর্জাতিক ব্যবসা প্রধান জনি ওমেন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। পরে প্রধানমন্ত্রী নিজে এ্যাম্বুলেন্সগুলোর বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দেখেন।