২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জানা-অজানা ॥ মানুষ আর পিঁপড়ার ওজন সমান!

পিঁপড়া খুবই ক্ষুদ্র এবং সামান্য প্রাণী। কিন্তু এটা হয়তো অনেকেই জানি না যে, এদের সমষ্টি চমকে দিতে পারে মানুষকে। পৃথিবীতে যত পিঁপড়া আছে তার সমষ্টিগত ওজন নাকি সব মানুষের সমষ্টিগত ওজনেরও বেশি। কথাটা শুনে নিশ্চয় মনে হচ্ছে পাগলের প্রলাপ? সম্প্রতি বিবিসির ‘দ্য ওয়ান্ডার অব এ্যানিমেলস : এ্যান্টস’ শীর্ষক এক টিভি অনুষ্ঠানে এমনই দাবি করেছেন খ্যাতনামা ওয়াইল্ডলাইফ প্রেজেন্টার ক্রিস প্যাকহাম। তিনি জানান, ‘যদি পৃথিবীর সমস্ত পিঁপড়ার ওজন নেয়া যায়, তাহলে তা বিশ্বের সমগ্র মানবজাতির ওজনের চেয়ে বেশি হবে।’ আসলে এমন ধারণা তিনি সংগ্রহ করেছেন ১৯৯৪ সালে পিঁপড়াদের নিয়ে প্রকাশিত ‘জার্নি টু দ্য এ্যান্টস’ বই থেকে। বইটির লেখক ছিলেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এডওয়ার্ড ও উইলসন এবং জার্মান প্রাণীতত্ত্ববিদ বার্ট হোয়েলডবলার।

তত্ত্বের সপক্ষে প্রমাণ : ব্রিটিশ পতঙ্গ বিশেষজ্ঞ সিবি উইলিয়ামস একবার পৃথিবীতে ঠিক কি পরিমাণ পতঙ্গ রয়েছে তার একটি আনুমানিক হিসাব বের করেছিলেন। তবে সেটিও অংকে প্রায় হাজার হাজার কোটি। তিনি গণনা করে জানিয়েছিলেন, সারা দুনিয়ায় মোট পোকা-মাকড়ের সংখ্যা প্রায় ১০ হাজার ট্রিলিয়ন। উইলসন ও হোয়েলডবলারের যুক্তি, ‘এর মধ্যে এক শতাংশ হচ্ছে পিঁপড়া। প্রতিটি কর্মী পিঁপড়ার ওজন প্রজাতি বিশেষে সাধারণত ১ থেকে ৫ মিলিগ্রাম হয়। যদি পৃথিবীর সমস্ত পিঁপড়ার একত্রিত ওজন নেয়া যায়, তাহলে তা বিশ্বের মানবজাতির ওজনের চেয়েও বেশি হবে।’ উইলসন এবং হোয়েলডবলার এই হিসাব করেছেন মানুষ ও পিঁপড়ার গড় ওজনের ওপর ভিত্তি করে। উইলসন ও হোয়েলডবলারের মতে, সাধারণত একটি পূর্ণবয়স্ক মানুষের ওজন একটি পিঁপড়ার চেয়ে ১০ লক্ষগুণ বেশি হয়। অর্থাৎ গড়ে মানুষের ওজন ৬২ কিলোগ্রাম ধরা হলে গড়ে পিঁপড়ার ওজন দাঁড়ায় ৬০ মিলিগ্রাম।

পিঁপড়ার ওজন বেশি হওয়ার কারণ : সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পতঙ্গ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ফ্রান্সিস র‌্যাটনিকস জানিয়েছেন, কিছু প্রজাতির পিঁপড়ার ওজন ৬০ মিলিগ্রাম হলেও সাধারণত এরা অনেক হাল্কা হয়। বিশ্বে এ পর্যন্ত অন্তত ১৩ হাজার প্রজাতির পিঁপড়া আবিষ্কৃত হয়েছে। আকারে ও ওজনে এদের মধ্যে পার্থক্য থাকলেও গড় ওজন ১০ মিলিগ্রামের আশপাশে হয় বলেই জানা গিয়েছে। তবে এটাও ঠিক, দুনিয়ায় কি পরিমাণ পিঁপড়া আছে তার সঠিক সংখ্যা কোনদিনই জানা সম্ভব নয়।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এ মুহূর্তে বিশ্বের মোট জনসংখ্যা প্রায় ৭২০ কোটি। ১৫ বছর বয়সের বেশি মানুষের মোট ওজন তাহলে ৩৩ হাজার ২০০ কোটি কিলোগ্রামেরও বেশি। পাশাপাশি পৃথিবীর সমস্ত পিঁপড়াকে ওজন করলেও তা খুব বেশি হলে ৪ হাজার কোটি কিলোগ্রাম হবে। অর্থাৎ উইলসন ও হোয়েলডবলারের তত্ত্ব ভুল। কিন্তু সবার সঙ্গে পুরোপুরি একমত নন র‌্যাটনিকস। তাঁর বিশ্বাস, অতীতে এই তত্ত্ব নির্ভুল প্রমাণ করা সম্ভব ছিল। তিনি দাবি করেন, দু’হাজার বছর আগে পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার চেয়ে ওজনে ভারি ছিল পিঁপড়ারা। সেই সময় জনসংখ্যা কম থাকায়, দূষণ ও উষ্ণায়ন কম থাকায় এবং কীটপতঙ্গের সংখ্যা হ্রাস না পাওয়ায় পিঁপড়ারা মানবজাতিকে সহজেই হেসে-খেলে টেক্কা দিত।

প্রদীপ সাহা

সূত্র ঃ বিবিসি