১৭ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পৌর নির্বাচন ॥ বরিশালের তিন পৌরসভায় এনপিপি প্রার্থীর ভরসা জামায়াতের ভোট

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জামায়াত ইসলামীর পক্ষ থেকে এবারই সর্বপ্রথম পৌর নির্বাচনে প্রকাশ্যে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়নি। মানবতা বিরোধী অপরাধে একের পর এক দলের শীর্ষ নেতাদের ফাঁসির রায় কার্যকর করা হলেও শরীকদল বিএনপির পক্ষ থেকে কোন কর্মসূচী পর্যন্ত ঘোষণা করা হচ্ছেনা। তাই বিএনপির সাথে জামায়াতের চলছে ঠান্ডা মাথার লড়াই।

সূত্রমতে, এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পৌর নির্বাচনে অধিকাংশ পৌরসভায় দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেছেন বিএনপি ভেঙ্গে প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি (এনপিপি)। তাদের টার্গেট জামায়াতের ভোট বিএনপির মেয়র প্রার্থীর পক্ষে নয়, কৌশলে তাদের (এনপিপি)’র মেয়র প্রার্থীর আম প্রতীকে যাবে। নির্ভরযোগ্য একটি গোয়েন্দা সূত্রে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। সূত্রটি জানিয়েছেন, যেকারণে এনপিপি’র মনোনীত মেয়র প্রার্থীদের অতীত রাজনৈতিক ইতিহাস পর্যালোচনা করেই দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। সূত্রমতে, বিএনপি ভেঙ্গে প্রতিষ্ঠিত এনপিপি (গমের শীর্ষ প্রতীক চেয়ে আম প্রতীক পাওয়া) এবারই সর্বপ্রথম পৌর নির্বাচনে অধিকাংশ পৌর এলাকায় তাদের দলীয় মনোনীত প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছেন। ফলে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ঘোষিত মেয়র প্রার্থীদের পাশাপাশি এনপিপির মেয়র প্রার্থীরাও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। জেলার ছয়টি পৌরসভার মধ্যে বাকেরগঞ্জে মন্টু হাওলাদার, গৌরনদীতে তৌহিদী মাহমুদ তুহিন ও উজিরপুর পৌরসভায় মনিরুজ্জামান হাওলাদারকে এনপিপির মনোনয়ন দেয়া হয়।

কর্মী বিহীন এনপিপি’র মেয়র প্রার্থী তুহিন ইতোমধ্যে জামায়াত-শিবিরের স্থানীয় নেতাকর্মীদের ম্যানেজ করে কৌশলে নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছে। নির্বাচনী আইনকে তোয়াক্কা না করে দেয়ালে দেয়ালে সাটিয়েছে পোষ্টার। একইভাবে চলছে উজিরপুর ও বাকেরগঞ্জ পৌরসভার এনপিপি মনোনীত মেয়র প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারনা।