১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইংল্যান্ডের কোচ হডসনের ভরসা রুনি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ওয়েন রুনির জন্য এই বছরটা মাইলফলকের। ববি চার্লটনকে ছাড়িয়ে এ বছরই যে ইংল্যান্ডের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতার আসনটি দখল করে নিয়েছেন তিনি। কিন্তু পারফর্মেন্সের বিচারে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি নিজেকে। তারপরও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই ইংলিশ স্ট্রাইকারের ওপরই ভরসা রাখছেন দেশটির কোচ রয় হডসন। সমালোচনা থাকা সত্ত্বেও ৩০ বছর বয়সী ওয়েন রুনির পারফর্মেন্সেই মুগ্ধ তিনি। শুধু তাই নয়, ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২০১৬ ইউরোর জন্য ম্যানইউর ইংলিশ স্ট্রাইকারের ওপরই ভরসা রাখছেন রয় হডসন। ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের ‘বি’ গ্রুপে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ রাশিয়া, ওয়েলস এবং সেøাভাকিয়া। যে কারণে গ্রুপ পর্বের বাধা পেরুতে নিজেদের যে সেরাটাই দিতে হবে সে ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই বলে মনে করছেন ইংল্যান্ডের জাতীয় দলের কোচ।

জাতীয় দলের জার্সিতে বিশ্বকাপ কিংবা অন্য বড় কোন টুর্নামেন্টের স্মৃতি খুব একটা সুখের নয় ওয়েন রুনির। দেশের জার্সি গায়ে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড তার দখলে। ১০৯ ম্যাচে ৫১ গোল করে স্যার ববি চার্লটনের রেকর্ড ভেঙ্গেছেন রুনি। তবে চলতি মৌসুমে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে মাত্র দুটি গোল করেছেন তিনি। যা খুবই হতাশার। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়েম্বলিতে ইউরো ২০১৬ বাছাইপর্বে ক্যারিয়ারে ৫০তম গোল করে ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েছিলেন রুনি। চলতি বছরে এটাই তার সেরা সাফল্য। ইংলিশ কোচ হডসন জানান, ‘আমি রুনির পারফর্মেন্সে দারুণ খুশি। অধিনায়ক হিসেবে এবং একজন ফুটবলার হিসেবে তার পূর্ণতা আমাকে সবসময়ই মুগ্ধ করে।’ ইউরোর মতো বড় টুর্নামেন্টে রুনির অভিজ্ঞতার প্রয়োজন বলে মনে করছেন ইংল্যান্ডের সাবেক ফুটবলার পিটার ক্রচও। তার মতে, ‘রুনি ইংল্যান্ডের সেরা স্ট্রাইকার। আর তার নেতৃত্বেই ইউরোতে খেলবে ইংলিশরা। যদিও দলের বেশ কিছু তরুণ প্রতিভা বের হয়ে আসছে, তারপরও আমি মনে করি রুনির মতো অভিজ্ঞ ফুটবলারকে এ মুহূর্তে দলের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।’ এ সময় পিটার আরও যোগ করেন, ‘রুনির রেকর্ডগুলো সত্যিই অসাধারণ। প্রিমিয়ার লীগ, চ্যাম্পিয়ন্স লীগ এবং ইংল্যান্ডের হয়ে তার দারুণ কিছু অর্জন রয়েছে। দেশের সর্বকালের সেরা গোলদাতা রুনি। তার মতো বিশ্বের সেরা একজন ফুটবলারকে পেয়ে আমরা সত্যিই ভাগ্যবান।’

ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার ‘কালো মানিক’ খ্যাত পেলে আরও একধাপ ওপরে। রুনির প্রসঙ্গে পেলে বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরেই রুনিকে লক্ষ্য করছি। তার খেলার ধরুন আমার এতটাই পছন্দ যে, আমি যদি কোচ হতাম রুনি হতো আমার দলের অন্যতম সেরা ফুটবলার। সে মাঠে নিজের সেরাটা দিয়ে খেলে। মাঠে তার আন্তরিকতার শেষ নেই। আর এ কারণেই আমি রুনিকে পছন্দ করি।’ ফ্রান্সে অনুষ্ঠেয় ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে মোট ২৪টি দল অংশগ্রহণ করবে।