১৬ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদা পাকিস্তানের মুখপাত্র ও এজেন্ট ॥ তোফায়েল নাসিম

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে ‘পাকিস্তানের মুখপাত্র ও এজেন্ট’ বলে আখ্যায়িত করলেন আওয়ামী লীগের দুই প্রভাবশালী নেতা বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তারা অভিন্ন কন্ঠে বলেন, বিজয়ের মাসে পরাজয়ের জ্বালা মেটাতেই খালেদা জিয়া পাকিস্তানীদের সুরে কথা বলছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করতে চাইছেন। স্বাধীনতাপ্রিয় দেশের জনগণই তাকে উপযুক্ত জবাব দেবে।

শনিবার রাজধানীর কেন্দ্রীয় ওষুধাগারে ৫০ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ও নতুন সাতটি মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষের মধ্যে গাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তারা এসব কথা বলেন।

প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদ বলেন, পড়াশোনা জানলে, স্বাধীনতার পক্ষে থাকলে আর ন্যূনতম বিবেক থাকলে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে ওই ধরনের উক্তি করতে পারতেন না খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়াকে পাকিস্তানের মুখপাত্র আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যে ভাষায় কথা বলেছেন, তা পাকিস্তানীদের মনের কথা। তিনি এখনও মনেপ্রাণে পাকিস্তানকে লালন করেন। সেজন্যই তিনি এখন পাকিস্তানের মুখপাত্রের মতো কথা বলেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম খালেদা জিয়াকে ‘পাকিস্তানের এজেন্ট’ আখ্যায়িত করে বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী কোন মানুষ শহীদের সংখ্যা নিয়ে এমন উক্তি করতে পারেন না। খালেদা জিয়া ওই উক্তি করে শুধু মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি অবমাননা করেননি, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার স্বামী জিয়াউর রহমানের সঙ্গেও বেইমানী করেছেন। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অবমাননাকর উক্তি করে শুধু নিজে নয়, তার দল বিএনপিকেও ডুবিয়েছেন। আসন্ন পৌরসভা এবং আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে খালেদা জিয়াকে জনগণ ওই উক্তির সমুচিত জবাব দেবে।

এর আগে ৫০ উপজেলা ও সাতটি নতুন মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষকে গাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে চিকিৎসকদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ যেন সঠিকভাবে স্বাস্থ্যসেবা পায় তা আপনাদের নিশ্চিত করতে হবে। এই গাড়ি দেয়ার মধ্য দিয়ে আপনাদের সম্মানিত করা হলো। কোন অনিয়ম অথবা রোগী সেবা নিয়ে গাফিলতির অভিযোগ এলে গাড়ি ফিরিয়ে আনা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়তনে বিশ^াসী। তাই নারীর প্রতি সম্মান রেখে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ নারী কর্মকর্তাদের গাড়ি দেয়া হয়েছে। এছাড়া পার্বত্য উপজেলাসহ দেশের দুর্গম উপজেলা এবং ভাল কাজ করছে, তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গাড়ি দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাদের গাড়ি দেয়া হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ দীন মোঃ নুরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, এ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি, স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, বিএমএ মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ ইকবাল আর্সলান, স্বাচিবের মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ এম এ আজিজ প্রমুখ।

এই মাত্রা পাওয়া