১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশের সামর্থ্য অনেক বেড়েছে ॥ আইজি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অতিরিক্ত আইজি করা হয়েছে সাত পুলিশ কর্মকর্তাকে। এতে কাজের গতিশীলতা বাড়বে। জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশের সক্ষমতা বেড়েছে বলে নতুন আইজিপিদের র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরিধান অনুষ্ঠানে আইজিপি একেএম শহীদুল হক এমনটাই দাবি করেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সাত পুলিশ কর্মকর্তাকে অতিরিক্ত আইজিপি করা সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। নতুন অতিরিক্ত আইজিপিরা হচ্ছেন বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির ভাইস প্রিন্সিপাল অমূল্য ভূষণ বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান, ডিআইজি মোহাম্মদ নাজিবুর রহমান, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত আইজি মোঃ মইনুর রহমান চৌধুরী, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত আইজিপি সিদ্দিকুর রহমান, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত আইজিপি মোহাম্মদ আবুল কাসেম ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া।

বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে অতিরিক্ত মহা-পুলিশ পরিদর্শকদের র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরিয়ে দেন পুলিশ প্রধান একেএম শহীদুল হক। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পুলিশ প্রধান বলেন, জননিরাপত্তা বিধান এবং জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস দমনে বাংলাদেশ পুলিশের সক্ষমতা ও সামর্থ্য অনেক বেড়েছে। পুলিশ এখন যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রস্তুত। জঙ্গী দমনে এককভাবে যে কোন অপারেশন পরিচালনার সামর্থ্য ও দক্ষতা পুলিশের রয়েছে। মিরপুরের জঙ্গী আস্তানায় অভিযান পরিচালনকারীদের ধন্যবাদ জানান পুলিশপ্রধান। পুলিশিং একটি টিম ওয়ার্ক। সবাই মিলে নিজ নিজ অবস্থান থেকে একসঙ্গে কাজ করলে দেশের আইনশৃঙ্খলার উন্নতি হবে, দেশ এগিয়ে যাবে। তিনি টিম স্পিরিট নিয়ে কাজ করার জন্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

আইজিপি এবং সিআইডি প্রধান শেখ হিমায়েত হোসেন, অতিরিক্ত আইজিপি মোঃ মোখলেসুর রহমান, র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেন।

এরআগে আইজিপিসহ উর্ধতন পুলিশ কর্মকর্তারা সকালে রাজারবাগ পুলিশ অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার্স কল্যাণ সমিতির ৩৩তম বার্ষিক সাধারণ সভায় যোগ দেন। পুলিশিংয়ের ক্ষেত্রে অনন্য অবদানের জন্য লক্ষ্মীপুর জেলার সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ নাসিম মিয়া, গোপালগঞ্জ জেলার প্রাক্তন এসআই বর্তমানে ইন্সপেক্টর মোঃ ইকরাম হোসেন এবং সিরাজগঞ্জ জেলার এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর জান্নাত তাজুল হুদা-কে ‘এস এম আহসান স্মৃতি পুরস্কার’ প্রদান করেন আইজিপি।

নির্যাতিত নারী ও শিশুর সুরক্ষা এবং সমাজ সেবায় অবদানের জন্য ডিএমপির সিনিয়র এএসপি মাহমুদা আক্তার লাকীকে ‘প্রফেসর অনামিকা হক লিলি ও ড. এম এনামুল হক পুরস্কার’ দেয়া হয়।

এ ছাড়া সমিতির চারজন বয়ঃজ্যেষ্ঠ সদস্যকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। তারা হলেন আলহাজ মোঃ ইয়াকুব আলী সরদার, মোঃ আকবর আলী, মোঃ আব্দুল জব্বার তালুকদার এবং মোঃ আবুল খায়ের খান।

সমিতির উদ্যোগে কৃতী ছাত্রছাত্রীদের ‘এম এন ভক্ত-শিপ্রা ভক্ত ফান্ড ও ক্ষিতিশ চন্দ্র মল্লিক-মায়া মল্লিক ফান্ড’ বৃত্তি প্রদান করা হয়। এবার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স উচ্চ বিদ্যালয় এবং শহীদ পুলিশ স্মৃতি স্কুল ও কলেজের ১২ কৃতী ছাত্রছাত্রীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। আইজিপি তাদের হাতে পুরস্কার ও ক্রেস্ট তুলে দেন।