১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর গাড়িতে গুলি

  • কুড়িগ্রামে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের ওপর হামলা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ পৌরসভা নির্বাচনের আর মাত্র একদিন বাকি। এখন সর্বত্র চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচার অভিযান। একই সময়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘটছে নির্বাচনী সংঘর্ষ, মারধর আর অগ্নিসংযোগের ঘটনা।

ফরিদপুরে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী কামরুজ্জামান মাজেদের গাড়িতে শনিবার রাতে গুলি করা হয়েছে। ভোলায় প্রচারের শেষ মুহূর্তের উত্তেজনায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

সেখানে প্রচারে নেমেছেন বিএনপির অন্যতম শীর্ষ নেতা মেজর (অব) হাফিজ।

যশোরের কেশবপুরে কয়েকটি নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করা হয়েছে। ময়মনসিংহের ত্রিশালে নির্বাচনী মামলায় কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ১৫ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কাউন্সিলর প্রার্থীসহ ৫ জন আহত হয়েছে। হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সেলিমের মাইক-রিক্সায় অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে। কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী পৌরসভায় মিছিল করতে নিষেধ করায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতারÑ

পাবনা ॥ ফরিদপুরে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী কামরুজ্জামান মাজেদের গাড়িতে গুলির সময় কেউ আহত হয়নি। শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পার-ফরিদপুর ব্রিজের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে।

ভোলা ॥ ভোলা পৌরসভায় নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ছে। কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে প্রচার অভিযান কেন্দ্র করে বিভিন্ন এলাকায় ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। ভোলা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের নমস্কুল মাঠে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর উঠান বৈঠক শুরুর আগে পার্শ্ববর্তী এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ গিয়ে ওই এলাকা থেকে দুটি মিষ্টির প্যাকেটে বোমা সদৃশ বস্তু উদ্ধার করে। গভীর রাতে ৫নং ওয়ার্ডের ওয়েস্টার্ন পাড়ায় বোমা বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে। অপরদিকে, রবিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীর পক্ষে সদর রোডে শো-ডাউন করে গণসংযোগ চালানো হয়। এ সময় বিএনপির পক্ষে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা মেজর (অব) হাফিজউদ্দিন আহম্মেদ অংশ নেয়।

কেশবপুর ॥ শনিবার রাতে যশোরের কেশবপুরে পৌরসভা নির্বাচনের জন্য নির্মিত কয়েকটি অফিস ভাংচুর করা হয়েছে। এছাড়া উপজেলা বিএনপির একাংশের অফিসও ভাংচুর করা হয়। এর মধ্যে শহরের থানার মোড়ে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আব্দুস সামাদ বিশ্বাসের একটি নির্বাচনী অফিস ও বিএনপির একাংশের কার্যালয়। বিএনপির হাবাসপোল নির্বাচনী অফিস ভংচুরের অভিযোগ করা হয়েছে সংবাদ সম্মেলনে। অন্যদিকে, শহরের কালারবাসায় কাউন্সিলর প্রার্থী আবু শাহিনের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করা হয়েছে। নির্বাচন অফিস ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী আব্দুস সামাদ বিশ্বাস প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলামকে দায়ী করে রবিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলেন করেছেন।

ময়মনসিংহ ॥ রবিবার সকালে জেলার ত্রিশাল পৌর এলাকার সাত নম্বর ওয়ার্ডের তরফদার বাড়ির সামনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী এবিএম আনিছুজ্জামানের কর্র্মী ও সমর্থকদের ওপর হামলায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আকরামকে (৩৫) ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ভর্তির পর অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। মেয়র প্রার্থী আনিছুজ্জামানের অভিযোগ নির্বাচনী প্রচার চালানোর সময় আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম সরকার জুয়েলের কর্মী ও সমর্থকরা এ হামলা চালায়।

কলাপাড়া ॥ পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে বিএনপি সমর্থক কাউন্সিলর প্রার্থী আলী আক্কাস হাওলাদার (৩৫), সমর্থক আল-আমিন হাওলাদার ও আওয়ামী লীগ সমর্থক ছাত্রলীগ কর্মী সোলায়মান, খলিল, মিলনসহ পাঁচ জন আহত হয়েছে। এদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে কুয়াকাটার এক নম্বর ওয়ার্ডের মেলাপাড়ায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

কলাপাড়ায় ধানের শীষ প্রার্থী হাজী হুমায়ুন কবির সিকদারের সমর্থকদের ওপর হামলা, মারধর, হুমকি-ধমকিসহ ভোট ডাকাতির জন্য সহস্রাধিক ভাড়াটে বহিরাগত সন্ত্রাসী জড়ো করার অভিযোগ এনে রবিবার বেলা ১১টায় স্থানীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হাজী হুমায়ুন সিকদার।

হবিগঞ্জ ॥ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আতাউর রহমান সেলিমের প্রচার মাইক ও রিক্সা পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শহরে নৌকা প্রতীকের পক্ষে মাইকে প্রচারকালে বৃন্দাবন সরকারী কলেজের সামনে কে বা কারা আগুন দিয়ে এই ঘটনা ঘটায়।

কুড়িগ্রাম ॥ জেলার নাগেশ্বরী পৌরসভা নির্বাচনে মিছিল করতে নিষেধ করায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও এসি ল্যান্ড আবু রায়হান দোলনের ওপর হামলা করেছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর মিছিলকারীরা। রবিবার বিকেলে নাগেশ্বরী কলেজ মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও এসি ল্যান্ড আবু রায়হান দোলন জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোঃ হোসেন ফাকুর পক্ষে একটি মোটরসাইকেল মিছিল বের হলে কলেজ মোড় এলাকায় তাদের থামিয়ে মিছিল করতে নিষেধ করেন। এ সময় নেতৃত্বদানকীরদের সঙ্গে কথা বলার ফাঁকে অতর্কিত পেছন থেকে তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। পরে আহত হয়ে নাগেশ্বরী উপজেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন তিনি। এ ব্যাপারে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে রিপোর্ট করা হয়েছে এবং স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ