২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোটারদের মন জয়ে প্রাণান্ত চেষ্টা

  • কিশোরগঞ্জে ভেদাভেদ ভুলে নেতাকর্মীরা দলের পক্ষে এককাট্টা

মাজহার মান্না, কিশোরগঞ্জ ॥ জেলার সাত পৌর নির্বাচনে শেষ মুহূর্তের প্রচারে ভেদাভেদ ভুলে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে রাজনৈতিক নেতারা এখন দিনরাত মাঠে ব্যস্ত সময় পার করছেন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তৃণমূল পর্যায়ে রাজনৈতিক অঙ্গনও সরগরম হয়ে উঠেছে। তীব্র শীত উপেক্ষা করে ভোর থেকে গভীর রাত অবধি প্রার্থীরা ছুটে বেড়াচ্ছেন এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায়। মেয়র প্রার্থীদের পক্ষে কেন্দ্রীয় ও জেলা পর্যায়ের শীর্ষনেতারা পথসভা ও গণসংযোগ চালিয়ে দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে ভোট চাইছেন। নেতাকর্মীরাও কোমর বেঁধে মাঠে নেমে ভোটারদের মন জয়ের প্রাণান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে পুরো পৌর এলাকা। পথসভা, মিছিল মিটিংসহ চলছে মাইকিং। প্রতিদিন দলীয় কর্মিবাহিনী নিয়ে প্রার্থীরা ভোটারদের সঙ্গে হাত-বুক মিলিয়ে ভোট ও দোয়া চাচ্ছেন। ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। আচরণবিধি লঙ্ঘন দেখভালের জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত সাত পৌর এলাকায় নিয়মিত টহল দিচ্ছে। নিয়ম ভেঙ্গে কোন প্রচার চালানো দেখামাত্রই প্রার্থীদের করা হচ্ছে অর্থদ-। নির্বাচন নিয়ে চায়ের টেবিল থেকে শুরু করে সবখানেই এখন চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। কে হচ্ছেন পৌর অভিভাবক। কাক্সিক্ষত ব্যক্তিকে নির্বাচিত করতে ভোটারদের মধ্যে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ।

এদিকে জেলার বাজিতপুর, কটিয়াদী, কুলিয়ারচর ও ভৈরব পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচার চালাচ্ছেন বলে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

কিশোরগঞ্জের সাত পৌরসভায় মেয়র পদে যারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তারা হলেনÑ সদর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মাহমুদ পারভেজ, বিএনপির মাজহারুল ইসলাম, সিপিবি-বাসদ মনোনীত আবুল হাসেম বিএসসি। হোসেনপুরে আওয়ামী লীগেরয় আব্দুল কাইয়ুম খোকন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আব্দুল কাদির স্বপন, বিএনপির বর্তমান মেয়র মাহবুবুর রহমান, বিএনপির বিদ্রোহী আনোয়ার আলী মৃধা রতন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ হোসেন হাছু। করিমগঞ্জে আওয়ামী লীগের কামরুল ইসলাম চৌধুরী মামুন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী বর্তমান মেয়র হাজী আব্দলু কাইয়ুম ও বিএনপির আশরাফ হোসেন পাভেল। কটিয়াদীতে বিএনপির বর্তমান মেয়র তোফাজ্জল হোসেন খান দিলীপ, আওয়ামী লীগের শওকত উসমান (শুক্কুর আলী) ও জাতীয় পার্টির আলাউদ্দিন আহমেদ আলম। বাজিতপুরে আওয়ামী লীগের আনোয়ার হোসেন আশরাফ, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী শওকত আকবর, বিএনপির বর্তমান মেয়র এহেসান কুফিয়া ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ সেলিম খান। কুলিয়ারচরে আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র আবুল হাসান কাজল ও বিএনপির শাফি উদ্দিন এবং ভৈরবে আওয়ামী লীগের সাবেক মেয়র ফকরুল আলম আক্কাছ, বিএনপির বর্তমান মেয়র হাজী মোহাম্মদ শাহীন ও তরিকত ফেডারেশনের সোহেল আহমেদ।