২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আক্কেলপুরে বড় দুই দলেই বিদ্রোহী প্রার্থী

নিজস্ব সংবাদদাতা, জয়পুরহাট, ২৭ ডিসেম্বর ॥ নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের প্রচার ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আক্কেলপুর পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে একই অবস্থা। এই পৌরসভায় মূলত আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকলেও এখানে এখন পর্যন্ত বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকিন্দিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাবেক ছাত্রনেতা গোলাম মাহফুজ চৌধুরী অবসরের সঙ্গে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরী বাদশার প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। এই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থীর আবরণে দুই বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচনের মাঠে রয়েছেন। এরা হলেনÑ আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আক্কেলপুরের ব্যবসায়ী পরিবারের সন্তান এবং সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল রাজ্জাক আকন্দর ছোট ভাই এনায়েতুর রহমান আকন্দ স্বপন ও বিএনপি নেতা বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরী বাদশা। দুই বিদ্রোহী প্রার্থীকে স্ব স্ব দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলও তারা নিজেদের বিজয় নিশ্চিত করতে ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন ভোট নিতে। এই অবস্থায় ভোটের প্রচার জমে উঠেছে প্রতিটি ওয়ার্ডে। মাঠপর্যায়ে দলীয় ও কয়েকটি জরিপ থেকে জানা যায়, এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী গোলাম মাহফুজ চৌধুরী অবসর ভোটারদের প্রিয়জন। তিনি শুধু এলাকার উন্নয়নের কাজে তৎপর থাকেন না, এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখ ও নিরাপত্তা নিয়ে সার্বক্ষণিক সজাগ থাকেন। শুধু সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ই নয়, আওয়ামী লীগ ও শান্তিপ্রিয় পুরো আক্কেলপুরবাসীর কাছে তিনি জনপ্রিয় ও আস্থাভাজন। সফল ছাত্রনেতা, ইউপি চেয়ারম্যান ও সাংগঠনিক দক্ষতায় উপজেলা আওয়ামী লীগকে গুছিয়ে তোলায় তার দায়িত্ববোধ আরও বেড়ে উঠেছে। এদিকে বর্তমান মেয়র বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত আলমগীর চৌধুরী বাদশা আক্কেলপুরকে গুছিয়ে তোলার জন্য ভোটারদের কাছে সহযোগিতা চাইছেন। দলের মধ্যে তার অবস্থান শক্তিশালী হলেও কোটারি রাজনীতির কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে তিনি মনে করেন। তিনি নির্বাচনে মেয়র হিসেবে জয়ী হয়ে এই কোটারি রাজনীতির জবাব দেবেন। একই ভাবে বর্তমান কাউন্সিলর বিএনপি নেতা রেজাউল করিম সরদার বিএনপির ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচনের মাঠে থেকে জয়ী হওয়ার জন্য লড়াই শুরু করেছেন। অপরদিকে আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেতা এনায়েতুর রহমান স্বপন আক্কেলপুরের উন্নয়নে ইতোপূর্বে ভূমিকা রেখেছেন। দলবাজি করে নিজের স্বার্থ হাসিল করেননি- এমন মনোবল নিয়ে তিনি ভোটরদের কাছে যাচ্ছেন। দলীয়ভাবে মনোনয়ন না দেয়ায় তিনি দলের সমালোচনাও করেন।গাইবান্ধায় একই

পরিবারে তিন

প্রার্থী

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ২৭ ডিসেম্বর ॥ গাইবান্ধা পৌর নির্বাচনে এবার একই পরিবার থেকে ৩ জন নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করছেন। তারা হলেন সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আনোয়ার-উল হাসান সবুরের বড় ভাবী সাবেক সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর সেলিনা আকতার বানু (মৌমাছি), তার দেবর মেয়র প্রার্থী আনওয়ার উল সরওয়ার সাহিব (রেল ইঞ্জিন) ও সবুরের বড় ছেলে এবং বর্তমান মেয়র শামছুল আলমের জামাই মমিনুল ইসলাম জুটন (উট পাখি)।

মেয়র প্রার্থী আনওয়ার উল সরওয়ার সাহিব এবার প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সেলিনা আকতার বানু ইতোপূর্বে একবার সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এবারও তিনি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করছেন। আর মমিনুল ইসলাম জুটন ইতোপূর্বে উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। এবার তিনি ৯নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করছেন।

নির্বাচিত সংবাদ