১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নাটকীয়তায় এগিয়ে চলেছে শিরোপা লড়াই

নাটকীয়তায় এগিয়ে চলেছে শিরোপা লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ঘটন-অঘটনে এগিয়ে চলেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের শিরোপা লড়াই। বড়দিনের একদিন পর ময়দানী লড়াইয়ে নেমেছিল ইপিএলের সব দল। ১৮তম রাউন্ডের এই ম্যাচগুলোও ছিল নাটকীয়তায় ভরপুর।

শনিবার ২০টি দলই মাঠের লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়। অধিকাংশ ম্যাচগুলোই ছিল নাটকীয়তায় ঠাসা। এরপরও অবশ্য পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ চারটি স্থানের হেরফের হয়নি। দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলা লিচেস্টার সিটিকে ১-০ গোলে হারিয়ে মাটিতে নামায় লিভারপুল। লিচেস্টারের এই হারে আর্সেনালের সুযোগ আসে শীর্ষে ওঠার। কিন্তু উল্টো গানার্সরা ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে সাউদাম্পটনের কাছে হেরে।

তবে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। নিজেদের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে সিটি ৪-১ গোলে পরাজিত করে সান্ডারল্যান্ডকে। কোচ বদলানোর পর প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছিল চেলসি। কিন্তু পরের ম্যাচেই ধাক্কা খেয়েছে দ্য ব্লুজরা। এবার স্টামফোর্ড ব্রিজে চেলসিকে ২-২ গোলে রুখে দিয়েছে ওয়াটফোর্ড। অন্য ম্যাচে সোয়ানসি সিটি ১-০ গোলে ওয়েস্টব্রুমউইচকে, এভারটন একই ব্যবধানে নিউক্যাসল ইউনাইটেডকে ও টটেনহ্যাম হটস্পার ৩-০ গোলে পরাজিত করে নরউইচ সিটিকে।

চলমান মৌসুমে পরশুই ম্যাচেই প্রথমবারের মতো গোলের দেখা পায়নি লিচেস্টার সিটি। তবে হারের মুখ দেখলেও পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান হারাতে হয়নি তাদের। ১৮ ম্যাচ শেষে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরেই আছে দলটি। নিজেদের ম্যাচে জয়ের দেখা পেলে লিচেস্টারকে ছাড়িয়ে যেতে পারত আর্সেনাল। কিন্তু শীর্ষে যাওয়ার মোক্ষম সুযোগটা হাতছাড়া করেছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা। অপ্রত্যাশিতভাবে নিচের সারির ক্লাব সাউদাম্পটনের কাছে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে হেরেছে গানার্সরা। এই হারে ১৮ ম্যাচ শেষে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আর্সেনাল। ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে ম্যানসিটি। ৩২ ও ৩০ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে আছে টটেনহ্যাম ও ক্রিস্টাল প্যালেস। বড়দিনের পর আর্সেনালকে গুড়িয়ে দিয়ে উৎসব করেছে সাউদাম্পটন। কুকো মার্টিনার গোলে ম্যাচের ১৯ মিনিটে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। প্রায় ৩০ মিটার দূর থেকে বাঁকানো শটে গোলটি করেন তিনি। বিরতির পর ৫৫ মিনিটে দ্বিতীয় গোল পায় সাউদাম্পটন।

এবার লক্ষ্যভেদ করেন শেইন লং। ৬৯ মিনিটে কর্নার থেকে জোরালো হেডে গোল করেন পর্তুগীজ ডিফেন্ডার জোশে ফন্টে। ম্যাচের যোগ করা সময়ে নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোল পেয়ে যান লং। আর্সেনালের জালে সাউদাম্পটন যেমন গোলোৎসব করেছে তেমনি সান্ডারল্যান্ডের জালে গোলবন্যায় মাতে ম্যানসিটি।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে সিটির জয়ে একটি করে গোল করেন রাহিম স্টার্লিং, ইয়াইয়া তোরে, উইলফ্রেড বোনি ও কেভিন ডি ব্রুইনে। সান্ডারল্যান্ডের একমাত্র গোলটি করেন ফ্যাবিও বোরিনি। ম্যাচের ১২ মিনিটে এগিয়ে যায় সিটি। ডি ব্রুইনের ক্রসে বল জালে পাঠান স্টার্লিং। ব্যবধান বাড়াতে বেশি সময় নেয়নি স্বাগতিকরা। ১৭ মিনিটে ডেভিড সিলভার কাছ থেকে বল পেয়ে জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তোরে। ২২ মিনিটে তৃতীয় গোল করেন বোনি। বিরতির পর ৫৪ মিনিটে সিটির হয়ে চার নম্বর গোল করেন ম্যাচে দারুণ খেলা ব্রুইনে। সান্ডারল্যান্ডের ব্যবধান কমানো বোরিনির গোলটি এক রকম সিটির উপহার। বোরিনির প্রথম প্রচেষ্টা রুখে দেন জো হার্ট। কিন্তু পরেরবার আর পারেননি তিনি।

চমক জাগানো লিচেস্টার সিটিকে ১০ ম্যাচ পর হারের স্বাদ দিয়েছে লিভারপুল। ক্রিশ্চিয়ান বেনটেকের একমাত্র গোলে নিজেদের মাঠ এ্যানফিল্ডে জায় পায় দ্য রেডসরা। জিততে মরিয়া লিভারপুল ম্যাচের শুরু থেকেই ছিল আক্রমণাত্মক। কিন্তু গোল পাচ্ছিল না তারা। অবশেষে বিরতির পর ম্যাচের ৬৩ মিনিটে কাক্সিক্ষত গোলটি পায় স্বাগতিকরা। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রবার্টো ফিরমিনোর ক্রসে দারুণ দক্ষতায় পা বাড়িয়ে বল জালে জড়ান বেলজিয়ামের স্ট্রাইকার বেনটেকে। এরপর প্রাণান্ত চেষ্ট করেও গোল পরিশোধে ব্যর্থ হলে টানা দশ ম্যাচ পর হারের স্বাদ পেতে হয় লিচেস্টারকে।