২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টুকরো খবর

  • সিঙ্গাপুর হ্যান্ডবলে বাংলাদেশের জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সিঙ্গাপুর হ্যান্ডবল ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় চলমান তৃতীয় সিঙ্গাপুর হ্যান্ডবল উন্মুক্ত টুর্নামেন্টে রবিবার মহিলা ও পুরুষ বিভাগে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ মহিলা দল ২৪-১৯ গোলে হংকং মহিলা দলকে পরাজিত করে। আর পুরুষ বিভাগের প্রথম খেলায় বাংলাদেশ পুরুষ দল ৩৪-১৩ গোলে সিঙ্গাপুর ‘বি’ দলকে এবং দ্বিতীয় খেলায় বাংলাদেশ পুরুষ দল ২৮-২১ গোলে সিঙ্গাপুর ‘এ’ দলকে পরাজিত করেন। গত শুক্রবার শুরু হয়েছে এ টুর্নামেন্ট। চলবে আগামী ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

মাস্টার পুরুষ শরীর গঠন প্রতিযোগিতা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ শরীর গঠন ফেডারেশনের উদ্যোগে ও ব্যবস্থাপনায় রবিবার দৈহিক ওজন গ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী জাতীয় ২৭তম সিনিয়র এবং ১২তম মাস্টার পুরুষ শরীরগঠন প্রতিযোগিতা ২০১৫। এবারের প্রতিযোগিতায় আর্থিক সহযোগিতা করছে ওয়ালটন, ইটনা গ্রুপ, নিউজিল্যান্ড ডেইরি প্রোডাক্টের শেপ-আপ, মাল্টি স্পোর্টস, জিএনসি লাইভ ওয়েল, মাল্টিট্রেড ইন্টারপ্রাইজ লিমিটেড ও আব্দুল মোনেম লিমিটেড। সবমিলিয়ে ৮০ ক্লাব ও সংস্থা অংশ নেবে এ প্রতিযোগিতায়। টুর্নামেন্টের বাজেট ধরা হয়েছে ৮ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

২৭তম সিনিয়র বিভাগের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে মোট ৭ ওজন শ্রেণী- ৫৫, ৬০, ৬৫, ৭০, ৭৫, ৮০ ও ৮০+। আর যাদের বয়স ৪০ বছরের উর্ধে তারা অংশগ্রহণ করছেন মাস্টার বিভাগে।

বিজয় দিবস কারাতে চ্যাম্পিয়ন নারায়ণগঞ্জ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় বিজয় দিবস কারাতে প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থা। চ্যাম্পিয়ন দল পেয়েছে ১২ স্বর্ণ, ২ রৌপ্য ৩ ব্রোঞ্জপদক। রানার্সআপ হয়েছে বিজিবি। তারা পেয়েছে ৫ স্বর্ণ, ২ রৌপ্য ও ১ ব্রোঞ্জপদক। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ক্রীড়া সচিব লে. কর্নেল মোঃ হাফিজুল ইসলাম খান। আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস ও বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শেখ আলী আহসান বাদলসহ অন্যরা।

বিসিএল শুরু ১০ জানুয়ারি

টুর্নামেন্ট হবে

যুবাদেরও

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে শুরু হবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অনুশীলন ক্যাম্প। ১০ জানুয়ারি থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ (বিসিএল) শুরু হবে। এরসঙ্গে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে অনুর্ধ ১৯ বিসিএলও শুরু করার কথা ভাবছে বিসিবি। রবিবার এমনটিই জানালেন বিসিবির টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।

বললেন, ‘আল্লাহর রহমতে বিসিএল আমরা আগামী জানুয়ারির ১০ তারিখ থেকে শুরু করতে যাচ্ছি।’ সঙ্গে কোন ফরমেটে খেলা হবে এবং পদ্ধতি কি হবে, তা জানাতে গিয়ে বললেন, ‘এটা আগের ফরমেটেই, লঙ্গার ভার্সনে হবে। এবার ডাবল লীগ পদ্ধতিতে হবে খেলা।’ জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজ, অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ টি২০ বাংলাদেশে হবে। আর তাই মাঠ ঠিকমত পাওয়া যাবে না। তাই ঢাকার বাইরে দুই ভেন্যুতে হবে খেলা। বিসিবির পরিচালক আকরাম জানালেন, ‘ভেন্যু এখন খুবই ব্যস্ত। কারণ অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপ হবে, জিম্বাবুইয়ে আসবে তারপর এশিয়া কাপ আছে। তো আমরা দুটি ভেন্যু ঠিক করেছি। একটা বগুড়া, আরেকটা রাজশাহী।’ জাতীয় দলের ক্যাম্প চলবে তখন। প্রাথমিক স্কোয়াডে ২৪ ক্রিকেটার থাকবেন। তারা তো খেলতে পারবে না? জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক জানালেন, ‘যেহেতু বাংলাদেশে ৮০ থেকে ৯০ জন সেরা ক্রিকেটার খেলবে। যারা জাতীয় দলে ব্যস্ত থাকবে, ওরা অনুশীলনেই ব্যস্ত থাকবে। তবে কোচ যদি ব্যাটসম্যান বা বোলারদের খেলাতে চায়, ওই জিনিসটা আমাদের মাথায় আছে। কোচের সঙ্গে আলাপ করেই আমরা সিদ্ধান্ত নেব ওরা খেলতে পারবে কি না। ক্যাম্প চলতে থাকবে।’ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই এবার বিসিএল হবে। তাতে অংশ নেবে চার ফ্র্যাঞ্চাইজি ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল, প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল, ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চল ও বিসিবি উত্তরাঞ্চল। ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো কি জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বাদ দিয়ে খেলতে একমত? আকরাম বলেন, ‘জ্বি। ওরা তো সব সময় বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য যথেষ্ট সহযোগিতা করে যাচ্ছে। গতবার অনুরোধ করেছিলাম ওরা খেলেছে। তাদের দিক থেকে আমাদের কোন সমস্যা হয় না। এবং তার সঙ্গে আরও একটা ভাল খবর আছে। অনুর্ধ ১৯ এর বিসিএলের মতো একটা করতে যাচ্ছি। যেটা খুব সম্ভবত ফেব্রয়ারির ১৭ তারিখ থেকে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম এবং এমএ আজিজে শুরু করতে যাচ্ছি। সেখানেও অনেকে আগ্রহ দেখিয়েছে দল কেনার জন্য।’ ফরমেট আগের মতোই, ম্যাচ ফি বা সবকিছু ঠিক হয়েছে? আকরাম বললেন, ‘যেহেতু আগের বছর সিঙ্গেল লীগ খেলা হয়েছিল এবং ম্যাচ ফি ৪০ হাজার টাকা ছিল। এবারও ৪০ হাজারই থাকছে। এবার ম্যাচ বেড়েছে। কারণ ডাবল লীগ হয়েছে। এছাড়া বাজেটে সমস্যা থাকায় আমরা এবার বাড়াইনি।’ আগের আসরে ফাইনাল খেলা হয়েছে। এবারও কী হবে? ফাইনাল হচ্ছে না বলেই জানালেন আকরাম খান, ‘না। যখন ডাবল লীগ হবে সেখানে কোন ফাইনাল থাকছে না।’ সঙ্গে যোগ করলেন এবার স্পোর্টিং উইকেটেই খেলাগুলো হবে, ‘গতবার উইকেট কিন্তু ভাল হয়েছে। সেটা আপনারা সবাই দেখেছেন। এটা যেহেতু লঙ্গার ভার্সনের ম্যাচ বগুড়া এবং রাজশাহীতে জানিয়ে দেব যেন উইকেট যেন স্পোর্টিং হয়। বোলার এবং ব্যাটসম্যানরা যেন সুবিধা পায় এমন উইকেট করব। তবে অবশ্যই ফ্ল্যাট উইকেট থাকবে না।’

উত্তরাঞ্চলত বিসিবি চালায়। বলা হয়েছিল পরে ফ্র্যাঞ্চাইজি মিললে তাদের দেয়া হবে। সে চেষ্টা করা হয়েছিল? আকরাম বলেন, ‘সে চেষ্টা এখনও চালিয়ে যাচ্ছি। দুই চারজনের সঙ্গে কথা হয়েছে। তো ওটা একটু সময় লাগছে। হয় তো বা এবার না হলেও আগামীবার হওয়ার সম্ভাবনা আছে।’ সঙ্গে আগের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো আগের দলই নিচ্ছে বলে জানান আকরাম, ‘আগের মতোই থাকবে। তবে নতুন আমরা খোঁজার চেষ্টা করছি।’ টি২০ নিয়ে বিসিএল করার কথা শোনা গিয়েছিল। সেই বিষয়টার কি অবস্থা? সাবেক এ অধিনায়ক বলেন, ‘না, আসলে এই টুর্নামেন্টটা মূলত ওদের সঙ্গে আমাদের যে চুক্তিটা আছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের স্বার্থে আমরা লঙ্গার ভার্সনটা চাচ্ছি। কারণ বাংলাদেশে যারা জাতীয় দলে খেলছে ওদের হয় তো আমরা জিম্বাবুইয়ের সঙ্গে টি২০ খেলানোর চিন্তা-ভাবনা চলছে। কিন্তু বাকি যারা আছে ওদের জন্য আমি মনে করি ক্রিকেটের স্বার্থে এবং ক্রিকেট খেলোয়াড় বেশি বের হওয়ার পেছনে লঙ্গার ভার্সনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমরা এটাতেই ঠিক থাকছি।’

ডারবান টেস্ট, ইংল্যান্ড ৩০৩/১০

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডারবান টেস্টের প্রথম ইনিংসে অলআউট হওয়ার আগে ৩০৩ রানের সম্মানজনক স্কোর গড়েছে সফরকারী ইংল্যান্ড। জবাবে দ্বিতীয় দিন এ রিপোর্ট লেখার সময় ৩৩ ওভারে ২ উইকেটে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ১০০ রান। চার ম্যাচ সিরিজের দীর্ঘ সফরে প্রথম টেস্ট খেলছে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বর দল দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাঁচে থাকা ইংল্যান্ড। টস জিতে ফিল্ডিং নেন স্বাগতিক অধিনায়ক হাশিম আমলা। দুই ইংলিশ ওপেনার এ্যালিস্টার কুক (০) ও এ্যালেক্স হেলেসকে (১০) সাজঘরে ফিরয়ে দারুণ শুরু এনে দেন তুখোড় প্রোটিয়া পেসার ডেল স্টেইন। মনে হচ্ছিল বিপদে পড়তে যাচ্ছে অতিথিরা। কিন্তু নিক কম্পটন ও জেমস টেইলরের দৃঢ়তাপূর্ণ দুই হাফ সেঞ্চুরির ওপর ভর করে বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠে ইংল্যান্ড। চতুর্থ উইকেটে ১২৫ রান যোগ করেন এই দুজন। কম্পটন ৮৫ ও টেইলর ৭০ রান করে আউট হন। তবে টপঅর্ডারের অন্য ব্যাটসম্যানরা আশা জাগিয়েও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয়সেরা তারকা জো রুট ২৪ রান করে পিয়েডটের শিকারে পরিণত হন। বেন স্টোকসের ২১ ও জনি বেয়ারস্টোর ৪১ ইংল্যান্ডকে তিন শ’র কাছাকাছি নিয়ে যায়। শেষদিকে স্টুয়ার্ট ব্রডের ৩৩ বলে অপরাজিত ৩২ রানের ইনিংসটি তাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সদ্য ভারত সফরে চার টেস্টে ৩-০তে হেরে যাওয়ায় এই সিরিজটা ‘নাম্বার ওয়ান’ দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

নির্বাচিত সংবাদ