২৪ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তিন কোম্পানির ৮৯৫ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ তিন কোম্পানির বন্ড অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড একচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কোম্পানি তিনটি হলো- বিএসআরএম স্টিলস, ঢাকা ব্যাংক ও আইএফআইসি। এ বন্ড ছাড়ার মাধ্যমে কোম্পানি তিনটি ৮৯৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে।

বিএসআরএম স্টিলস ॥ বিএসআরএম স্টিলস লিমিটেডের ২৪৫ দশমিক ০৫৯ কোটি টাকার জিরো কুপন বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিএসইসি), যার মেয়াদ হবে চার বছর। সোমবার বিএসইসির ৫৬২তম কমিশন সভায় এই প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। বিএসইসি জানায়, বন্ডটির বৈশিষ্ট্য হবে- ফুলল্লিরিডিমেবল, জিরো কুপন বন্ড। বন্ডটি চার বছরে সম্পূর্ণ অবসায়ন হবে, যা কর্পোরেটস, ফান্ডস, ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশনস এ্যান্ড হাই নেট ওয়র্থ ইনডিভিজ্যুয়ালসকে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এই বন্ডটি ইস্যুর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ বিএসআরএম স্টিলস লিমিটেড তাদের তারল্য চাহিদা পূরণ এবং বিদ্যুত প্রকল্পে বিনিয়োগ করবে। বিএসআরএম স্টিলস লিমিটেডের জিরো কুপন বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য এক হাজার টাকা। ডিসকাউন্ট রেট ৯ দশমিক ৫ শতাংশ। বন্ডটির এ্যারেঞ্জার এবং ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক লিমিটেড এবং গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

আইএফআইসি ॥ আইএফআইসি ব্যাংকের ৩৫০ কোটি টাকার সাব-অর্ডিনেটেড বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিএসইসি), যার মেয়াদ হবে সাত বছর। বিএসইসি জানায়, বন্ডটি সাত বছরে সম্পূর্ণ অবসায়ন হবে। ব্যাংক, স্থানীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং উচ্চ সম্পদধারী ব্যক্তিদের প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে এই বন্ড ইস্যু করা হবে। এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- ফুলল্লি রিডেমেবল এবং কুপন বেয়ারিং বন্ড। এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড ব্যাসেল থ্রির গাইডলাইন অনুযায়ী তাদের মূলধনের ভিত্তি শক্তিশালী করার কাজে ব্যবহার করবে। আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের সাব-অর্ডিনেটেড বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০ লাখ টাকা এবং কুপন রেট ১০-১২ শতাংশ। এই বন্ডের লিড এ্যারেঞ্জার এবং ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছে ব্র্যাক ইপিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড।

ঢাকা ব্যাংক ॥ ঢাকা ব্যাংকের ৩০০ কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল সাব-অর্ডিনেটেড বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিএসইসি), যার মেয়াদ হবে সাত বছর। বিএসইসি জানায়, বন্ডটি সাত বছরে সম্পূর্ণ অবসায়ন হবে। স্থানীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা কোম্পানি, কর্পোরেট বডি এবং যে কোন যোগ্য ব্যক্তিরাই প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে এই বন্ড কিনতে পারবেন। এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- নন-কনভার্টেবল, তালিকাভুক্ত হবে না, সম্পূর্ণ অবসায়নযোগ্য, ফ্লোটিং রেটেড এবং সাব-অর্ডিনেট বন্ড।

এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড ব্যাসেল টু-এর শর্ত পূরণ করবে। ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের নন-কনভার্টেবল সাব-অর্ডিনেটেড বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০ লাখ টাকা এবং কুপন রেট হবে ১০-১৩ শতাংশ। এই বন্ডের মেনডেটেড লিড এ্যারেঞ্জার এবং ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক এবং গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।