২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলাপাড়া ও কুয়াকাটায় ডোর টু ডোর প্রচার

কলাপাড়া ও কুয়াকাটায় ডোর টু ডোর প্রচার

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ২৮ ডিসেম্বর ॥ কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিপুল চন্দ্র হাওলাদার এবং বিএনপির প্রার্থী হুমায়ুন কবির সিকদারের মধ্যে। দুই প্রার্থী তাদের বিজয়ের বিষয়ে আশাবাদী। চষে বেড়িয়েছেন মাঠঘাট, পথ-প্রান্তর। সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার অঙ্গীকার রেখে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিপুল হাওলাদার তার বিজয় নিয়ে শতভাগ আশাবাদী। অপরদিকে বিএনপির প্রার্থী হুমায়ুন সিকদার দাবি করেছেন, নিরপেক্ষ ভোট হলে তার বিজয় সুনিশ্চিত। তবে বসে নেই জাপা (এ) প্রার্থী হুমায়ুন কবির মাসুম। তিনিও মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ভোট চাইছেন। অপরদিকে নবগঠিত পৌরসভা কুয়াকাটায় মেয়র পদে মূলত ত্রিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে- আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল বারেক মোল্লা, বিএনপির আব্দুল আজিজ মুসল্লী এবং জাপা (এ) প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের মধ্যে। আরও দু’জন প্রার্থী থাকলেও ভোটের হিসাবে তাদের শক্ত অবস্থান নেই। ইতোমধ্যে কুয়াকাটায় একাধিক সংঘাতের ঘটনা ঘটেছে। বিএনপি ও জাপার প্রার্থীর অভিযোগ, প্রকাশ্যে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে তাদের সমর্থকদের মারধর, হামলা ও ধাওয়া করা হয়েছে। বাড়িছাড়া করা হয়েছে বহু নেতাকর্মীকে। দুটি পৌরসভায় শত শত বহিরাগতের অবস্থান নিয়ে রয়েছে অভিযোগ। ছয় হাজার আট শ’ ৪৫ জন ভোটার অধ্যুষিত কুয়াকাটা পৌরবাসী এখন অপেক্ষার প্রহর গুনছেন কে হচ্ছেন প্রথম পৌর মেয়র। কৌশলে ডোর টু ডোর প্রচার চলছে। ভোটারদের মন জয়ের শেষ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতসহ পুলিশ-র‌্যাবের পাশাপাশি বিজিবি ইতোমধ্যে টহল শুরু করে দিয়েছে দুটি পৌর এলাকায়। তবে সরকারী দলের প্রার্থীর সমর্থনে এই প্রথমবার কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনার পাশাপাশি বিভিন্ন উপ-কমিটির নেতাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। তবে ভোটের কাজ ছাড়াও এদের অনেককে নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে স্থানীয় প্রার্থী ও সমর্থকদের। ভোটের প্রচারের চেয়ে নিজের উপস্থিতি সামাজিক গণমাধ্যমে (ফেসবুকে) প্রচার নিয়ে তারা কেন্দ্রের নজর কাড়তে ছিল বেশি ব্যতিব্যস্ত।

সোনারগাঁয়ে ভোটারের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

সংবাদদাতা, সোনারগাঁও, নারায়ণগঞ্জ, ২৮ ডিসেম্বর ॥ নিবার্চনের আর মাত্র ২ দিন বাকি থাকলেও ইতোমধ্যে মেয়র, সাধারণ ও সংরক্ষিত পদের ব্যালট পেপারসহ নির্বাবনী প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের মাঝে রয়েছে যেমন আনন্দ তেমনই ভোটের দিন নির্বিঘেœ ভোট দিয়ে বাড়িতে ফিরে আসতে পারবে কি-না তা নিয়ে রয়েছে ভোটাররা আতঙ্কে।

মেয়র প্রার্থীদের পক্ষে বহিরাগত লোকজন প্রতিদিন দেখা যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বির (নৌকা) প্রতীকের পক্ষে জেলার এলাকা থেকে আওয়ামী লীগের নতৃবৃন্দকে মাঠে কাজ করতে দেখা যাচ্ছে। বিদ্রোহী প্রার্থী সাদেকুর রহমানের (জগ) পক্ষে সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার স্ত্রী ডালিয়া লিয়াকতসহ জাতীয় পার্টিও নেতৃবৃন্দ মাঠে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। বহিরাগত ব্যক্তিদের প্রচারণার ফলে ভোটাররা রয়েছে আতঙ্কে।