১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জেএমবির তিন সদস্য ৫ দিনের রিমান্ডে হাটহাজারী থানায় দুই মামলা

  • অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামের হাটহাজারীর আমানবাজার এলাকার জঙ্গী আস্তানা থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেফতার জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর তিন সদস্যকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। কর্ণফুলী থানায় দায়ের হওয়া আগের একটি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আদালতে পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারক এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এদিকে, এই তিন জঙ্গীর বিরুদ্ধে রবিবার রাতে হাটহাজারী থানায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনের পৃথক ধারায় দুটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। সন্ত্রাস দমন আইনে আরও একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইসমাইল জানান, জেএমবির এই আস্তানা থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দুটি দায়ের করেন নগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই ফররুখ আহমেদ মিনহাজ। মামলায় জেএমবি সদস্য নাঈমুর রহমান, ফয়সাল মাহমুদ ও মোঃ শওকত রাসেলসহ মোট চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য এ প্রসঙ্গে জানান, গ্রেফতার তিন জেএমবি সদস্যকে এর মধ্যেই অনেক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এতে তাদের কাছ থেকে কিছু তথ্য মিলেছে। সে অনুযায়ী এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বিশেষ করে নিষিদ্ধঘোষিত এই সংগঠনটির সামরিক কমান্ডার ফারদিনকে ধরতে সম্ভাব্য স্থানগুলোতে অভিযান চলছে। তাকে আটক করা গেলেই গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে।

সিএমপির গোয়েন্দা বিভাগ সূত্রে জানা যায়, কর্ণফুলী থানার মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম মোঃ রহমত আলীর আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক এই তিন আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালতে আবেদন মঞ্জুর হওয়ার পরই তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়া হয়।

পুলিশ জানায়, হাটহাজারী থানায় গত রবিবার রাতেই অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা দায়ের হয়। তবে সন্ত্রাস দমন আইনে আরও একটি মামলা দায়ের হবে। সে মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে কর্ণফুলী থানার খোয়াজনগর এলাকায় জঙ্গী আস্তানা থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধারের ঘটনার মামলা তদন্তে বেরিয়ে এসেছিল হাটহাজারী থানার আমানবাজার এলাকায় আরেকটি জঙ্গী আস্তানার তথ্য। পুলিশ অভিযান চালিয়ে গত শনিবার রাতে নগরীর কাজীর দেউড়ি থেকে নাঈমুর রহমান, নালাপাড়া থেকে ফয়সাল মাহমুদ ও কসমোপলিটন এলাকা থেকে মোঃ শওকত রাসেলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ তিনজনই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাদের তথ্যের ভিত্তিতেই গত শনিবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়েছিল আমানবাজার এলাকায় জেএমবি আস্তানায়। সেখান থেকে উদ্ধার হয় অত্যাধুনিক রাইফেল, গুলি, বিস্ফোরক, সামরিক পোশাকসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম। আমানবাজারের বাসাটি ভাড়া নিয়েছিল ফারদিন। সে এখনও পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাকে হণ্যে হয়ে খুঁজছে।