২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরেনার মাইলফলক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নতুন মৌসুম শুরুর মাত্র এক সপ্তাহ বাকি। তার আগেই নতুন এক মাইলফলক স্পর্শ করলেন সেরেনা উইলিয়ামস। ১৫০ সপ্তাহ বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকার রেকর্ড গড়লেন তিনি। টেনিসের কিংবদন্তি স্টেফি গ্রাফ আর মার্টিনা নাভ্রাতিলোভার পর তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টানা বেশি সময় র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকার বিস্ময়কর কীর্তি গড়লেন সেরেনা উইলিয়ামস। ২০১৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি, সোমবার বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ফিরে পেয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। কৃষ্ণকলির জন্য তার আগের সময়টা ছিল অবশ্য খুবই হতাশার। ২০১০ আর ১১ সালের প্রায় ১০ মাস ইনজুরির কারণে কোর্টের বাইরে ছিটকে পড়েছিলেন তিনি। সেই সময় অনেক হতাশার মধ্য দিয়েই সময় পার করেছেন সেরেনা। তবে তিন বছর আগে চোট-হতাশা কাটিয়ে সেই যে কোর্টে ফিরেন। তাকে আর পেছনের দিকে ফিরে তাকাতে হয়নি। এখন পর্যন্ত বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান কারও কাছে হারাতে দেননি তিনি। এ সময়ের মধ্যে অসামান্য সব কীর্তি গড়েছেন সেরেনা উইলিয়ামস। প্রতিপক্ষের জন্য রীতিমতো হুমকি হয়ে দাঁড়ান আমেরিকান কিংবদন্তি। পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতায় সেরেনা উইলিয়ামস নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়।

সেরেনা উইলিয়ামসের আগে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ে সবচেয়ে বেশি সময় কাটিয়েছেন আর মাত্র দুজন। ১৮৬ সপ্তাহে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় দাঁড় করিয়েছেন জার্মান কিংবদন্তি স্টেফি গ্রাফ। ১৯৮৭ সালের ১৭ আগস্ট থেকে ১৯৯১ সালের ১০ মার্চ পর্যন্ত র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নাম্বার স্থানটি দখল করে রেখেছিলেন তিনি। আর তারপরের স্থানটি মার্টিনা নাভ্রাতিলোভার। ১৫৬ সপ্তাহ বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ছিলেন নাভ্রাতিলোভা। আমেরিকান তারকা নাভ্রাতিলোভা ১৯৮২ সালের ১৪ জুন থেকে ১৯৮৫ সালের ৯ জুন পর্যন্ত এককভাবে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে অবস্থান করেছিলেন। এই মুহূর্তে টেনিস কোর্টে যেভাবে খেলছেন সেরেনা সেই প্রেক্ষাপটে তারই স্বদেশী নাভ্রাতিলোভাকে ছাড়িয়ে যাওয়াটা এখন তার জন্য কেবলই সময়ের বিষয়।

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের ড্র আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় আগামী ৮ জানুয়ারি হতে ১৯ জানুয়ারি ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। এ টুর্নামেন্টে মালয়েশিয়া, বাহরাইন, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, কম্বোডিয়া, নেপাল, বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল ও বাংলাদেশ অনুর্ধ ২৩ জাতীয় ফুটবল দলসহ মোট ৮ দল অংশগ্রহণ করবে। আজ আসন্ন এ টুর্নামেন্টের ‘ড্র’ ও সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এ ড্র ও সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।