২৩ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শুরুটা হার, শেষটায় জয় দিয়ে বিদায় মারুফুলের

স্পোর্টস রিপোর্টার, ত্রিবান্দ্রাম, কেরল থেকে ॥ শুরুটা হার, শেষটায় জয় দিয়ে নিরুত্তাপ বিদায় নিলেন মারুফুল হক। তবে এটা যেমন ঠিক, এ নিয়ে টানা তিন সাফ ফুটবল আসরে প্রথম পর্ব থেকেই ছিটকে গেছে বাংলাদেশ, তেমনি এটাও ঠিক মারুফুলের হাত ধরেই দীর্ঘ ছয় বছর এবং নয় ম্যাচ পর সাফে আবারও জিতেছে বাংলাদেশ। সোমবার নিজেদের শেষ গ্রুপ ম্যাচে ভুটানকে হারানোর পর ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মারুফুল বলেন, ‘টার্গেট ছিল এই আসরের শিরোপা জেতার। অথচ বাস্তবতা হলো আমরা সেমিতেই উঠতে পারিনি। আজ ভুটানকে হারালাম। এর ফলে সাফে তাদের বিপক্ষে আমাদের কখনই না হারার রেকর্ডটি অক্ষুণœ থাকল।’ অপর এক প্রশ্নের জবাবে মারুফুল বলেন, ‘গত দুই ম্যাচে আমরা শতভাগ খেলতে পারিনি। তৃতীয় ম্যাচে যে পেরেছি, তা বলা যাবে না। তবে আগের চেয়ে কিছুটা বেটার ফুটবল খেলেছি তো বটেই।’ বাংলাদেশ দলের অসংখ্য গোল মিসের প্রসঙ্গে মারুফুল বলেন, ‘১০ জনের ভুটানের বিপক্ষে আমরা ৭-৮ গোলে জিততে পারতাম। এই স্কোরই বলে দেয় আমরা পরিণত ফুটবল খেলতে পারিনি। আসলে মনোযোগের অভাবই এর মূল কারণ।’ গ্রুপে প্রতিপক্ষদের মধ্যে আফগানিস্তানকেই সবচেয়ে কঠিন বলে অভিহিত করেন মারুফুল।

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মালদ্বীপের সঙ্গে যদি ড্র করতে পারত বাংলাদেশ, তাহলে ভুটানের সঙ্গে জিতে পয়েন্ট বাড়িয়ে সেমিতে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা তৈরি করতে পারত বাংলাদেশ। এটা নিয়ে কোন আক্ষেপ? ‘ওসব ভেবে লাভ নেই। আমরা পারিনি, এটাই হচ্ছে বাস্তবতা।’ সাফ জবাব মারুফুলের। তিন ম্যাচ থেকে কি ইতিবাচক কিছু পেয়েছেন? ‘শেষ ম্যাচে মনোযোগ দিয়ে খেলা। যেটা প্রথম দুই ম্যাচে পাইনি।’ বাফুফে জানিয়েছে পদত্যাগ করলেও মারুফুল ইচ্ছে করলে কোচের পদে থাকতে পারেন। তাছাড়া ক’দিন পরেই বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ। এ প্রসঙ্গে মারুফুল বলেন, ‘আমি এখনও এ বিষয়ে কিছু শুনিনি। বিষয়টা সত্যি হলে তাহলে দেশে ফিরে বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিন ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলতে হবে।’ শনিবার মালদ্বীপের কাছে হারের পরই সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ (সাফ সুুজকি কাপ) থেকে বাংলাদেশের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। দলের হেড কোচ মারুফুল হক এই ব্যর্থতা নিজের ঘাড়ে নিয়ে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। দলের এ ব্যর্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে ক্ষমাও চান তিনি। উয়েফার ‘এ’ লাইসেন্স কোচিং কোর্স করা মারুফুল গত ২৪ নবেম্বর বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব পান। ইতালিয়ান ফ্যাবিও লোপেজকে বরখাস্ত করে তাকে এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তার অধীনে ‘দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ’ খ্যাত এই আসরে বাংলাদেশ চরমভাবে ব্যর্থ হয়।

ডারবান টেস্টে ইংল্যান্ডের লিড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডারবান টেস্টে লিড নিয়েছে সফরকারী ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে নিজেরা ৩০৩ রান করার পর দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১৪ রানে অলআউট করে দিয়েছে এ্যালিস্টার কুকের দল। ৮৯ রানে এগিয়ে থেকে সোমবার তৃতীয় দিন এ রিপোর্ট লেখার সময় দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ১০১ রান করেছে ইংলিশরা। সব মিলিয়ে অতিথিদের লিড ১৯০ রানের।

ডিন এলগারের সেঞ্চুরি সত্ত্বেও বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় বড় স্কোর গড়তে পারেনি স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। ৮ চার ও ১ ছক্কায় ১১৮ রান নিয়ে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন এই ওপেনার। ২২তম টেস্টে এটি তার চতুর্থ সেঞ্চুরি। ঠিক এক বছর পর সাদা পোশাকে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন এলগার। যা বিপদের মধ্যে দলকে আরও বড় লজ্জার হাত থেকে বাঁচিয়ে দেয়। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৯ রান তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সের। ইংল্যান্ড বোলারদের দাপটের মুখে ডেল স্টেইন ১৭ ও তেম্বা বাভুমা ১০ ছাড়া আর কেউ দুই অঙ্কের দেখা পাননি। অধিনায়ক হাশিম আমলা ফেরেন ৭ রান করে। ৮১.৪ ওভারে ২১৪Ñএ গুটিয়ে যায় প্রোটিয়ারা। ইংলিশদের হয়ে ৪ উইকেট নেন স্টুয়ার্ট ব্রড ও মঈন আলি। ২ শিকার স্টিভেন ফিনের। এর আগে প্রথম ইনিংসে জেমস টেইলর (৭০) ও নিক কম্পটনের (৮৫) দৃঢ়তাপূর্ণ দুই হাফসেঞ্চুরির ওপর ভর করে তিন শতাধিক রান করে ইংল্যান্ড। জনি বেয়ারস্টো ও স্টুয়ার্ড ব্রড করেন ৪১ ও ৩২* রান। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৪ উইকেট নেন ডেল স্টেইন ও মরনে মরকেল। চার ম্যাচের সিরিজে প্রথম টেস্ট খেলছে দু-দল।