২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চাঙ্গা এশিয়ার পুঁজিবাজার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ তেল রপ্তানিতে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উঠেছে ইরানে। রপ্তানি বাড়ানোরও পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটি। এতে করে বিশ্ব বাজারে এ পণ্যের দর আরও কমেছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও মঙ্গলবার ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে এশিয়ার শেয়ারবাজারে।

গত দিনের তুলনায় এদিন যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের (ক্রুড) দাম ৩ শতাংশেরও বেশি কমে গেছে। আর উন্নত মানের অপরিশোধিত রেন্ট ক্রুড বিক্রি হচ্ছে প্রায় ১১ বছরের মধ্য সর্বনিম্ন দরে।

বিবিসির এক খবরে বলা হচ্ছে, প্রযুক্তি খাতের কোম্পানি তোশিবার শেয়ার দর এদিন এক ধাক্কায় ২.৭ শতাংশ বেড়ে যাওয়ায় এর ইতিবাচক প্রভাব পড়ে জাপানের বাজারে। মঙ্গলবার নিক্কেই সূচক লেনদেনের শুরুতে গতদিনের খরা কিছুটা কাটিয়ে উঠে। দিন শেষে বাজার ০.৬ শতাংশ বেড়ে ১৮ হাজার ৯৮২.২৩ পয়েন্টে শেষ হয়।

ইরানের ওপর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উঠার পর দেশটি চাইছে দিনে ৫ লাখ ব্যারেল তেল রপ্তানি করবে। এতে করে তেলের দাম আরও কমে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আর এমনটি হলে জ্বালানি খাতের শেয়ারকে আরও চাপে ফেলাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

খবরে বলা হয়, এদিন চীনের বাজারে সাংহাই কম্পোজিট সূচক ০.৯ শতাংশ বেড়ে ৩ হাজার ৫৬৩.৭৪ পয়েন্টে শেষ হয়েছে। হংকংয়ের হ্যাং সেং সূচক ০.৩ শতাংশ বেড়ে লেনদেন শেষ হয়েছে ২৮ হাজার ৪৪২.৭৫ পয়েন্টে।

চারদিনের ছুটি শেষে মঙ্গলবার ৮ কার্যদিবসের মতো ঘুরে দাঁড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বাজার। বেঞ্চমার্কে এসএন্ডপি/এএসএক্স ২০০ সূচক এদিন ১.২ শতাংশ বেড়ে লেনদেন শেষ হয় ৫ হাজার ২৬৭.৩০ পয়েন্টে। দক্ষিণ কোরিয়ার কোসপি সূচকও এদিন ০.১ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৯৬৬.৩১ পয়েন্টে বাজার শেষ করে। এছাড়া দিনশেষে ভারতের সেনসেক্স সূচকটি বেড়েছে প্রায় ৪০ পয়েন্ট। এছাড়া পাকিস্তানের করাচি সূচকটি মোট ২১৬ দশমিক ৫২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৩২ হাজার ৮৯০ দশমিক ৫৬ পয়েন্টে।

অন্যদিকে এশিয়ার সব বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ঢাকা স্টক একচেঞ্জের প্রধান সূচকটিও আগের দিনের তুলনায় ৪ দশমিক ৮০ পয়েন্ট বেড়েছে। ফলে দুই দিনের সামান্য পতনের ধারা থেকে বের হয়ে আসলো বাজারটি।