২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বছরের শেষ ম্যাচে মাঠে নামছে বার্সা-রিয়াল

  • জয় দিয়ে ২০১৫ সাল শেষ করার প্রত্যয় দুই পরাশক্তিরই, মেসির চেয়ে বেশি বেতন পেতে চলেছেন নেইমার!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নয়দিনের বিরতি শেষে ফের মাঠে গড়াচ্ছে স্প্যানিশ লা লিগা। দুটি দিন বাদে আজ মাঠে নামছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী সব দলই। তবে বরাবরের মতো সবার দৃষ্টি থাকছে দুই পরাশক্তি বার্সিলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের দিকে।

আগের ম্যাচে রেকর্ড গড়া রিয়াল মাদ্রিদ ঘরের মাঠ সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে মুখোমুখি হচ্ছে রিয়াল সোসিয়েদাদের। ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে আসা বার্সিলোনা নিজেদের মাঠ ন্যুক্যাম্পে লড়বে রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে। আরেক শিরোপা প্রত্যাশী এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এ্যাওয়ে ম্যাচে খেলবে রায়ো ভায়োকানোর সঙ্গে। অন্য ম্যাচগুলোতে মুখোমুখি হবে লেভান্তে-মালাগা, সেভিয়া-এস্পানিওল, এইবার-স্পোর্টিং ডি গিজন, সেল্টা ডি ভিগো-এ্যাথলেটিক বিলবাও, গেটাফে-ডিপোর্টিভো লা করুনা ও লাস পালমাস-গ্রানাডা। লা লিগার ২০১৫ সালের শেষ ম্যাচে বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হবে ভিয়ারিয়াল ও ভ্যালেন্সিয়া।

রিয়াল ও বার্সা দু’দলই বছরের শেষ ম্যাচ জয়ের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে। আজকের ম্যাচ জিতে ২০১৬ সাল উদ্দীপনার সঙ্গে শুরু করতে চায় দল দুটি। এক ম্যাচ কম খেলা সত্ত্বেও বর্তমানে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে বার্সিলোনা। ১৫ ম্যাচে এই সংগ্রহ বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। ১৬ ম্যাচ খেলা এ্যাটলেটিকোর পয়েন্টও ৩৫। তাদের অবস্থান দুইয়ে। ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে রিয়ালের অবস্থান তিনে।

নিজেদের শেষ ম্যাচে রায়ো ভায়োকানোর জালে গোলোৎসব করে রিয়াল। ১০-২ গোলের বিশাল জয়ে গ্যালাক্টিকোরা ৫৫ বছরের রেকর্ড ভাঙ্গে। এই ম্যাচটির ঠিক আগেই রাফায়েল বেনিতেজের দলের করুণ অবস্থা ছিল।

এ কারণে ধারাবাহিকতা ধরে রেখে জয় চায় দলটি। রিয়ালের জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস বলেন, আমরা সবাই ভালটা চায়। সবাইকে আশ্বস্ত করছি, সবাই জয় দিয়ে বছর শেষ করতে মুখিয়ে আছে।

ক্লাব বিশ্বকাপের কারণে লম্বা সময় পর লা লিগায় মাঠে নামছে বার্সা। নিজেদের মাঠে কাতালানারও জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবছে না। ইতোমধ্যে দুবাই থেকে এ্যাওয়ার্ড জিতে ন্যুক্যাম্পে ফিরেছেন প্রাণভোমরা মেসি। লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন আজেন্টাইন অধিনায়কও। তিনি বলেন, আমরা অসাধারণ একটা বছর কাটিয়েছি। জয় দিয়ে এই সুখস্মৃতি শেষ করতে চায়। আশা করছি নতুন বছরেও আমরা প্রত্যাশিত সাফল্য পাব।

নেইমারকে নিয়ে টানাটানির কারণে তার চাহিদা আরও বেড়ে গেছে বার্সার কাছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর, মেসির পর নেইমারই বার্সিলোনার সবচেয়ে বেশি বেতন পাওয়া খেলোয়াড় হতে পাচ্ছেন। কোন কোন মাধ্যম জানাচ্ছে, ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক বেতনে ছাড়িয়েও যেতে পারেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে। খবর রটেছে বার্সা ম্যানেজমেন্ট একটু ব্যাকফুটে চলে গেছে নেইমারকে রিয়ালে উড়িয়ে আনার গুঞ্জনে। লুইস ফিগোর ভুলটা এবার করতে চায় না কাতালানরা। এ কারণেই নেইমারের বেতন বাড়ছে নিশ্চিত।

এখনও তার বেতন কম না। কিন্তু বর্তমানে যা পাচ্ছেন তার চেয়ে নেইমারের বেতন তিনগুণ বাড়তে যাচ্ছে। এটা হলে মেসির বেতনের অঙ্কটাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারেন নেইমার। এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে পারিশ্রমিক পাওয়া ফুটবলার মেসিই। নেইমার বার্সিলোনায় যোগ দেয়ার পর দুই বছর পার হয়ে গেছে।

চুক্তির মেয়াদ আরও তিন বছর আছে। তবে ঝুঁকি নিতে নারাজ স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। এখনই আরও পাঁচ বছর চুক্তি বাড়িয়ে নিতে চায় তারা। তবে বিষয়টা ঝুলে আছে বেশ কিছুদিন ধরে। নেইমার এখনও স্বাক্ষর করেননি নতুন চুক্তিতে। নেইমারের বাবার কণ্ঠেও অনিশ্চয়তার সুর।

তবে জোর গুঞ্জন, নেইমারকে রেখে দিতে বড় অঙ্কের প্রস্তাব দিয়েছে বার্সিলোনা কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে বছরে ১ কোটি ৫ লাখ ইউরো বেতন পান। নতুন চুক্তিতে সেটি বেড়ে গিয়ে ৩ কোটি ১৫ লাখ হবে। তাহলে মেসির চেয়েও বেশি বেতন পাবেন তিনি! মেসির বর্তমান বেতন ২০ কোটি ইউরো।

নির্বাচিত সংবাদ