২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লঙ্কানদের সিরিজ বাঁচানোর লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নিউজিল্যান্ড সফরে লঙ্কানদের যা অবস্থা তাতে তাদের সঙ্গে ‘লড়াই’ শব্দটা আর যায় না! একের পর এক লজ্জায় ডুবছে অর্জুনা রানাতুঙ্গার উত্তরসূরিরা। বিদায় নেয়া দুই বড় তারকা মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারার ছায়া থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না এ্যাঞ্জেলা ম্যাথুসের দল। দুই টেস্টের সিরিজে ‘হোয়াইটওয়াশের’ পর আরেকটি ভরাডুবির দ্বারপ্রান্তে শ্রীলঙ্কা। প্রথম দুই ওয়ানডেতে টানা হারে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে তৃতীয়টিতে জিতেই হবে অতিথিদের। নেলশনে খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার (বাংলাদেশ সময় বুধবার রাত চারটায়)।

মূলত ব্যাটিং ব্যর্থতাই অতিথিদের ডোবাচ্ছে। ক্রাইস্টচার্চের একতরফা প্রথম ওয়ানডেতে ৪৭ ওভারে ১৮৮ রানে অলআউট হয় লঙ্কানরা। জবাবে ২১ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। বল হাতে অতিথি লাইনআপের কোমড় ভেঙ্গে দেয়া ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন স্বাগতিক পেসার ম্যাট হেনরি। একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচটা তো ছিল আরও একপেশে। কিউই- বোলিং তোপে ২৭.৪ ওভারে মাত্র ১১৭ রানে গুটিয়ে যায় টস জিতে ব্যাটিং নেয়া শ্রীলঙ্কা। গাপটিল-তা-বে ৮.২ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। ৩০ বলে অপরাজিত ৯৩ রানের ‘অতিমানবীয়’ ইনিংস উপহার দিয়ে ‘নায়ক’ যথারীতি গাপটিল। শ্রীলঙ্কার রানটা তিনি একাই তাড়া করেন। ইনিংসের আয়ু ৮.২ ওভার বা ৫০ বল, যেখানে ৩০ বল মোকাবেলয়ায় ৯৩ রানে অপরাজিত গাপটিল! ২০ বলে ১৭ রানের পথে দর্শক হয়ে ছিলেন সঙ্গী টম লাথাম। হতাশ লঙ্কান অধিনায়ক ম্যাথুস যেমন বলেন, ‘ব্যর্থতার দায়িত্বটা ব্যাটসম্যানদেরই নিতে হবে। আমাদের টপঅর্ডার পুরোপুরি ব্যর্থ। কেবল এ ওয়ানডেতে নয়, টেস্ট সিরিজেও আমরা একই সমস্যায় পড়েছি। সিরিজে টিকে থাকতে তাই ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নিতে হবে। বেশ কিছুদিন হলো আমরা নিউজিল্যান্ডে এসেছি। কন্ডিশন নিয়ে অজুহাতের সুযোগ নেই।’ ব্যাটসম্যানদের সামর্থ্য নিয়ে সন্দেহ নেই কোচ মারভান আতাপাত্তুর! তাদের মানসিকভাবে শক্ত হতে হবে বলে মনে করেন তিনি। মারভান বলেন, ‘গত নিউজিল্যান্ড সফরে, এমন কি বিশ্বকাপেও আমাদের ব্যাটিং এতটা খারাপ হয়নি। দলে তিলকারতেœ দিলশান, লাহিরু থিরিমান্নে, এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের মতো ব্যাটসম্যান আছে। মিলিন্দা শ্রীবর্ধনে প্রতিভার স্বাক্ষর রাখছে। প্রয়োজন কেবল মানসিক শক্তি অর্জন। ওদের বিশ্বাস করতে হবে, এই পরিবেশেও ভাল করা সম্ভব। আশা করছি বাকি ওয়ানডেগুলো অন্যরকম হবে!’ অন্যরকম যে হতেই হবে, নইলে টানা তিন হারে সিরিজ খোয়াতে হবে শ্রীলঙ্কাকে। লেজেগোবড়ে হয়ে পড়া ম্যাথুসের দল কি পারবে? সময়েই তার উত্তর মিলবে।