২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুন্সীগঞ্জে এলোপাথারি গুলি, আওয়ামী লীগ প্রার্থীসহ আহত ১৫

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ পৌরসভায় এলোপাথারি গুলি ও সহিংসতায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ মুন্না (৩৫), মতি ব্যাপারী (৩৭), শ্যামল (২৬), সেন্টু (৫৫) ও মামুন (২৮) গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গলায় গুলিবিদ্ধ মতি ব্যাপারীকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। অন্য আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বেলা পৌনে ১১টার দিকে পৌরসভারটির তিন নম্বর ওয়ার্ডের ইদ্রাকপুর উচ্চ বিদ্যায় কেন্দ্রের সামনে যেতেই আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফয়সাল বিপ্লবকে মারধর করে এবং তার গাড়িতে গুলি ছুড়ে সন্ত্রীরা। এরপর শুরু হয় এলোপাথরি গুলি। হাটলক্ষীগঞ্জ বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ইদ্রাকপুর উচ্চ বিদ্যায় কেন্দ্রে বাইরে এবং পুরনো বাসস্ট্যান্ট ও কুষি ব্যাংক চত্ত¦র এলাকায় কতিপয় যুবক এলোপাথারি গুলি করতে থাকে। এই সময় দিশেহারা হয়ে লোকজন ছুটাছুটি শুরু করে। একটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুলিশ টহল গাড়িকে ধাক্কা দিলে পুলিশও আহত হয়। এখানে অন্তত ১২ জন আহত হয়।

আহত আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফয়সাল বিপ্লব জানিয়েছেন, মকবুল কমিশনারের নেতৃত্বে এই হামলা চলে।

পরে বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কেন্দ্রগুলোতে ভোটগ্রহন কার্যক্রম চালু থাকলেও ভোটার উপস্থিতি কম।

এছাড়া মানিকপুর গ্রিন লিফ কিন্ডার গার্ডেন কেন্দ্রে দু’ কমিশনার প্রার্থীর সমর্থকতর মধ্যে সংঘর্ষে দুই জন আহত হয়েছে। দেওভোগ ২নং প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছে। এই কেন্দ্রে মোবাইলে ভিডিও করার সময় আলমগীর নামে এক যুবকে দূবৃত্তরা বেদম প্রহার করে মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

চরশিলমন্দির প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে দৈনিক সকালে খবরের স্থানীয় প্রতিনিধি আরাফাতুজ্জামান বাবুকে (৩০) মারধর করেছে সন্ত্রীরা।

এছাড়া মিরকাদিম পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে মিছিল নিয়ে রিকাবী বাজার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টাকালে পুলিশ বাধা দিলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

সার্বিক বিষয়ে এডিসি ও রির্টানিং অফিসার মো. ফজলে আজিম জানান, কেন্দ্রে বাইরে কিছু ঘটনা ঘটলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তা নিয়ন্ত্রণ করেছে। দুই পৌর সভার ৪২টি কেন্দ্রেই ভোট গ্রহন স্বাভাবিক রয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া