২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পৌর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ, গননা শুরু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের নবম পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এখন চলছে ভোটগণনা। গণনা শেষে সংশ্লিষ্ট প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা কেন্দ্রেই ফলাফল ঘোষণা করবেন।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। গুটিকয়েক এলাকায় বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ঘটলেও সারাদেশ থেকেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উৎসবের আমেজে ভোট দিয়েছেন ভোটাররা।

২৩৪ পৌরসভার এ নির্বাচনে পৌরপিতা ও অন্য জনপ্রতিনিধির পদ পেতে ভোটযুদ্ধে নেমেছে ২০টি প্রতিদ্বন্দ্বী দল। আছেন বড় দলগুলোর বিদ্রোহী স্বতন্ত্র ও অন্যান্য স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও। দেশে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে মেয়র পদে ভোট হওয়ায় এবারের স্থানীয় এ নির্বাচনে যোগ হয়েছে সংসদ নির্বাচনের আমেজ। কাউন্সিলর পদ নির্দলীয় হলেও সেখানেও রয়েছে দলগুলোর নেপথ্যের লড়াই।

দলগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ২৩৪ জন, বিএনপির ২২৩ জন, জাতীয় পার্টির ৭৪ জন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ৮ জন, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির ১ জন, জেপির ৬ জন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির ৪ জন, বিকল্পধারা বাংলাদেশের ১ জন, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের ১ জন ও বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের ১ জন প্রার্থী রয়েছেন।

এছাড়া বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশের ৪ জন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) ২১ জন, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) ১ জন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ১৭ জন, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) ১ জন, ইসলামী ঐক্যজোটের ১ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ৫৭ জন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ৩ জন, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ১ জন ও খেলাফত মজলিশের ১ জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে থাকছেন।

তবে তাদের মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় আওয়ামী লীগের ৭ প্রার্থী ছিলেন না ভোটের লড়াইয়ে।

এই মাত্রা পাওয়া