১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোটের মাঠে : পীর বানুর খায়েস...

ভোটের মাঠে : পীর বানুর খায়েস...

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ নব্বই বছরের পীর বানু। বয়সের ভারে নুব্জ। হাটা চলা বেশ কঠিন। তাই শহরের উত্তর ইসলামপুরের বাড়ি থেকে প্রায় কোয়াটার কিলোমিটার দূরের পিটিআই কেন্দ্রে আসা কঠিন। তার নাতি দুপুরে পাজা কোলে করে তাকে নিয়ে আসেন ভোট কেন্দ্রে। ভোট দিয়ে বেশ খুরি পীর বানু। ভোট দিয়ে যাওয়ার পথে নাতির কোলেই কথা হয়। পীর বানু বলেন- অত কষ্টের ভোট কাজে লাগলে ভালা লাগবো। কত জনইতো কথ আশা শুনায়। এই বয়সে কত বার ভোট দিলাম কিন্তু কথা বইলা কথা রাখে না। এইবার যদি কথা রাখে তয় মরনের দেইখ্যা যাইতে পারুম। এমন আরও বেশ কয়েকজন বৃদ্ধা এসেছিলেন শহরের প্রাইমারী ট্রেনিং ইনস্টিটিউশনের কেন্দ্রে। এই ইনস্টিটিউশনের একাডেমি ভবনে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে মহিলা ভোটরা ভোট প্রদান করেন। এই কেন্দ্রে উত্তর ইসলামপুর ও নয়াপাড়া গ্রামের মহিলা ভোটারা এখানে ভোট প্রয়োগ করেন। এই কেন্দ্রের ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৯৭৪। পাশে পরিক্ষণ বিদ্যালয় ভরনে গ্রাম দু’টির পুরুষ ভোটারার ভোট প্রায়োগ করেন। এই কেন্দ্রটিতে ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৯৭৯। মহিলা কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সদর উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার আরিফুর রহমান বলেন, ভোটারের অনেক চাপ ছিল। তাই লম্বা লাইন ছিল বেশীর ভাগ সময়। তবে পীর বানুদের মত বয়স্কদের অগ্রাধিকার দিয়ে সাথে সাথে ভোট প্রদানের সুযোগ দেয়া হয়।