২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পরিবর্তন নেই চলচ্চিত্রাঙ্গনে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেষ হয়ে গেল ২০১৫ সাল। দেশের চলচ্চিত্রাঙ্গন এখনও স্থবির। নব্বইয়ের দশক থেকে এ স্থবিরতা শুরু হলেও উত্তরোণের পথ এখনও সুগম হয়নি। একটি দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিশেষ মাধ্যম চলচ্চিত্র। পৃথিবীর অন্যান্য দেশে চলচ্চিত্র উন্নয়নের পাশাপাশি এ মাধ্যমটিকে নিয়ে চলছে নানা গবেষণা। আমাদের দেশে তার ব্যতিক্রম। মানসম্মত চলচ্চিত্র নেই, সিনেমা হল দর্শকশূন্য, চলচ্চিত্রের ব্যবসা মন্দা, চলচ্চিত্র নির্মাণ হ্রাস সব মিলিয়ে চলচ্চিত্রশিল্প পিছিয়ে যাচ্ছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর চলচ্চিত্র নির্মাণ যেমন কমেছে, তেমনি ব্যবসায়িক সফলতাও হ্রাস পেয়েছে। গত বছর মুক্তি পেয়েছিল ৭৬টি চলচ্চিত্র এর মধ্যে ব্যবসা সফল হয় ১২টি। চলচ্চিত্র ব্যবসায়ী ও প্রদর্শক সমিতির ভাষ্যমতে এ বছর মুক্তিপ্রাপ্ত ৬৩টি চলচ্চিত্রের মধ্যে ব্যবসা সফল হয় মাত্র দুইটি। এগুলো হলো-‘ছুঁয়ে দিল মন’ ও ‘লাভ ম্যারেজ’। আর গড় ব্যবসা এবং পুঁজি ঘরে তুলতে পেরেছে ৮টি চলচ্চিত্র। এগুলো হচ্ছে- ‘রোমিও বনাম জুলিয়েট’, ‘এইতো প্রেম’, ‘অগ্নি টু’, ‘আরও ভালবাসব তোমায়’, ‘আশিকী’, ‘রাজাবাবু’, ‘মহুয়া সুন্দরী’ ও ‘ব্লাক’। এ বছর মুক্তি পাওয়া মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে আছে গোলাম মোস্তফা শিমুল পরিচালিত ‘হরিযুপীয়া’। মোরশেদুল ইসলাম পরিচালিত ‘অনিল বাগচীর একদিন’, মানিক মানবিক পরিচালিত ‘শোভনের স্বাধীনতা’, রিয়াজুল রিজু পরিচালিত ‘বাপজানের বায়োস্কাপ’। জানা গেছে, এগুলো মুক্তি পেয়েছে গুটি কয়েক হলে। ঢাকা-কলকাতা যৌথ প্রযোজনার বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে এ বছর। এরমধ্যে রয়েছে জানুয়ারিতে মুক্তি পাওয়া আবদুল আজিজ ও অশোক পাতি পরিচালিত ‘রোমিও বনাম জুলিয়েট’ ও ‘আশিকী’, ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘অগ্নি-টু’ ও কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু পরিচালিত ‘ব্লাাক’। চলচ্চিত্রকর্মীদের বিদেশী চলচ্চিত্র মুক্তিবন্ধের দাবি উপেক্ষা করে এ বছরও কয়েকটি ভরতীয় চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। জানুয়ারি মাসে মুক্তি পায় প্রভু দেবা পরিচালিত ভারতীয় চলচ্চিত্র ‘ওয়ান্টেড’, মার্চ মাসে ফারহান আক্তার পরিচালিত ‘ডন-টু’, এপ্রিল মাসে রাজিব পরিচালিত ‘খোকাবাবু ৪২০’ ও শংকর ভাইয়া পরিচালিত ‘খোকাবাবু’।

নির্বাচিত সংবাদ