১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গ্রামীণফোনের স্টার গ্রাহকরা স্বল্পসুদে ব্র্যাক ব্যাংকের ঋণ পাবেন

গ্রামীণফোনের স্টার গ্রাহকরা আকর্ষণীয় সুদে ব্র্যাক ব্যাংকের বিভিন্ন ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন।

ঋণ সুবিধার মধ্যে আছে হোম লোন, চাকরিজীবী ও ডাক্তাররা মাত্র ৯.৫% বার্ষিক সুদে ঋণ পাবেন। ব্যবসায়ী, স্বনিয়োজিত এবং ভূমি মালিকগণ এই ঋণ পাবেন ১০% সুদে। হোম লোনের প্রসেসিং ফি হবে মাত্র ০.৫০%। চাকুরীজীবিদের জন্য অটো লোন ও ব্যক্তিগত ঋণের সূদ যথাক্রমে ১২% ও ১৩% এবং ডাক্তারদের জন্য ব্যক্তিগত ঋণের সুদ ১৩%। এসব পণ্যের জন্য কোন প্রসেসিং ফি নেই।

এছাড়াও গ্রামীণফোনের স্টার গ্রাহকরা ব্র্যাক ব্যাংকের প্লাটিনাম, গোল্ড ও সিলভার ক্রেডিট কার্ডের (ভিসা/মাস্টার) বার্ষিক ফি মওকুফের সুবিধা পাবেন। আজ ১ জানুয়ারি থেকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই বিশেষ সুবিধা পওয়া যাবে সারাদেশে ব্র্যাক ব্যাংকের ১৭৪টি রিটেইল, এসএমই/কৃষি শাখা এবং এসএমই সার্ভিস সেন্টারে।

গ্রাহকগণ িি.িমৎধসববহঢ়যড়হব. পড়স/ংঃধৎ-ঢ়ৎড়মৎধস সাইটে এবং িি.িনৎধপনধহশ.পড়স সাইটে গিয়ে এই অফার সম্পর্কে জানতে পারবেন অথবা ১৬২২১ (ব্র্যাক ব্যাংকের ২৪ ঘণ্টা চালু কল সেন্টার) এ কল করেও জানতে পারবেন। -বিজ্ঞপ্তি

সিনেটে নিন্দা প্রস্তাব

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট অধিবেশনে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শীতকালীন বিশেষ অধিবেশন শুরু হয় যাতে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। সিনেট সদস্য সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, অধিবেশনে এই নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করেন বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট প্রতিনিধি ড. সরফুদ্দিন। তার এই প্রস্তাবকে সমর্থন করেন রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট প্রতিনিধি মনজুরুল আহসান বুলবুল এবং মাহফুজা খানম। এরপর অন্য সদস্যরাও এই প্রস্তাবকে সমর্থন করে বক্তব্য রাখেন।

পল্লীকবির জন্মবার্ষিকী আজ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ৩১ ডিসেম্বর ॥ পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের ১১৩ তম জন্মবার্ষিকী ১ জানুয়ারি। এ উপলক্ষে ফরিদপুরের বিভিন্ন সংগঠন নানাবিধ কর্মসূচী নিয়েছে। ১৯০৩ সালের এইদিনে জসীম উদ্দীন ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের তাম্বুলখানা গ্রামে মামাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। কবর, নিমন্ত্রণসহ অনেক স্মরণীয় কবিতা, সোজন বাদিয়ার ঘাট, নক্সীকাঁথার মাঠসহ অনেক কালজয়ী কাব্যগ্রন্থ রচনা করে তিনি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করে গেছেন। ১৯৭৬ সালের ১৪ মার্চ ৭৩ বছর বয়সে তিনি ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। ওইদিনই ফরিদপুর সদরের অম্বিকাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের পৈত্রিক বাড়িতে ঐতিহাসিক ‘ডালিম গাছের’ তলায় তাঁকে দাফন করা হয়। পল্লীকবির ১১৩তম জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে ফরিদপুরের সরকারী-বেসরকারী সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন কর্মসূচী নিয়েছে।