২০ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছাত্রলীগ কর্মীর হাতের আঙ্গুল ও কান কেটে গায়ে গরম পানি ঢেলে দিল সন্ত্রাসীরা

  • লঘু পাপে গুরু দণ্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল, ৩১ ডিসেম্বর ॥ বিনা টিকিটে লঞ্চ ঘাটে প্রবেশ করায় নিখিল চন্দ্র বেপারী (২২) নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীর ওপর পৈশাচিক নির্যাতন করা হয়েছে। ঘাট ইজারাদার জমির হোসেনের নেতৃত্বে ওই ছাত্রলীগ কর্মীর কান ও হাতের আঙ্গুল কেটে দেয়া হয়েছে। চায়ের কেটলির গরম পানি ঢেলে ঝলসে দেয়া হয়েছে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ। বুধবার বিকেলে কালাইয়া লঞ্চঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৭ জনকে আসামি করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে ঘটনার দিন বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে ছাত্রলীগ কর্মী নিখিল ঢাকায় অবস্থানরত তার ভাই মিঠুনের জন্য কিছু শীতবস্ত্র পাঠাতে বিনা টিকিটে লঞ্চঘাটে প্রবেশ করলে ঘাটের ইজারাদার জামির হোসেনের নেতৃত্বে ৬/৭ জন সন্ত্রাসী নিখিলকে ধরে রাস্তার ওপর ফেলে মারধর করে। এরপর তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিখিলের ডান কান ও বাম হাতের আঙ্গুল কেটে দেয়। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা রাস্তার পাশে একটি দোকান থেকে চায়ের কেটলি এনে গরম পানি নিখিলের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ঢেলে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে নিখিলের ভাই বাসুদেব বেপারী বাদী হয়ে ঘাট ইজারাদার জমির হোসেনসহ ৭ জনকে আসামি করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।