২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তুতি যুক্তরাষ্ট্রের

  • ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচী জোরদারের নির্দেশ রুহানির

ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে ইরান, হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন কোম্পানি ও ব্যক্তির ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার মার্কিন সাময়িকী ওয়াল স্ট্রীট জার্নাল এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপির।

ইরানের ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ঘটনায় দেশটির ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত বিলম্ব করছে হোয়াইট হাউস। যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের পদক্ষেপ তেহরানের সঙ্গে কষ্টার্জিত পারমাণবিক চুক্তি ব্যাহত করতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ বিভাগ তেহরানের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের রূপরেখা তৈরি করেছিল। তবে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত থেকে আপাতত সরে এসেছে ওয়াশিংটন। ফলে বিষয়টি এখনও টেবিলে ফাইলবন্দী রয়েছে। কংগ্রেসে হোয়াইট হাউসের পাঠানো এক প্রজ্ঞাপনের উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়, বুধবার ওয়াশিংটনে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দেয়ার কথা ছিল। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা নিষেধাজ্ঞা কখন জারি করা হবে তার সুনির্দিষ্ট সময়সীমা উল্লেখ করেননি।

এদিকে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচীকে কেন্দ্র করে তেহরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্র নিয়েছে এমন খবর প্রকাশ হওয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচী জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। এজন্য তিনি একটি ডিক্রী জারি করেছেন। ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকানকে পাঠানো ডিক্রীতে প্রেসিডেন্ট নির্দেশ দিয়েছেন যে, দেশের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের উৎপাদন জোরদার করতে হবে। তিনি জেনারেল দেহকানকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র অবৈধ উপায়ে ও শত্রুতামূলকভাবে ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে। এ অবস্থায় সশস্ত্র বাহিনীর জন্য আরও গতি ও আন্তরিকতার সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র উৎপাদন জোরদার করা জরুরী। ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র নতুর করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে এটা হবে গত জুলাইতে বিশ্ব শক্তির সঙ্গে ইরানের পারমাণবিক চুক্তির পর তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের প্রথম অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা।