২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বানানো এটিএম কার্ড দিয়ে লাখ লাখ ডলার চুরি!

যুক্তরাষ্ট্রের বহুজাতিক ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান জেপি মরগান চেজ ব্যাংক। ব্যাংকটির ১৫টি হিসেবে বড় অঙ্কের অর্থ জমা। এসব হিসাবধারীর আটজনই মারা গেছেন। আর বাকিরা বৃদ্ধ। তারাও হিসাবে তেমন খবর রাখেন না।

হিসাবগুলো থেকে খুবই কম অর্থ উত্তোলন হয়। অল্প অল্প করে গত দুই বছরে উত্তোলিত অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে চার লাখ ডলার। টাকায় হিসাব করলে দাঁড়ায় তিন কোটি ২০ লাখ। তবে এই অর্থ হিসাবধারীদের কেউ উত্তোলন করেননি।

গত ডিসেম্বর মাসে নিউইয়র্কের ব্রুকলিনে সুপ্রীমকোর্টে একটি মামলা দাখিল করা হয়েছে। দাখিলকৃত অভিযোগে বলা হয়েছে, জেপি মরগানের বেডফোর্ড-স্টাইভেস্যান্ট শাখার দুই কর্মী জোনাথান ফ্রান্সিস ও ডিয়ন আলিসন বানানো এটিএম কার্ড দিয়ে ওই ১৫টি হিসাব থেকে অর্থ সরিয়েছেন।

নিউইয়র্ক এ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্নেইডারম্যান এর আগে গত বছরের জুনে বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএম যন্ত্র থেকে অর্থ সরানোর ব্যাপারে সতর্ক করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, বিভিন্ন ব্যাংকের কর্মীরা গ্রাহকদের হিসাব, এটিএম বুথ ও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন তথ্য সহজেই পেয়ে যান। এ থেকে সতর্ক থাকতে হবে। বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি এমন মন্তব্য করেছিলেন। এনডিটিভির অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, ব্রুকলিন জেলা এ্যাটর্নি কার্যালয়ের প্রসিকিউটর অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, ৩০ বছর বয়সী আলিসন ও ২৭ বছর বয়সী ফ্রান্সিস বানানো কার্ড দিয়ে বিভিন্ন হিসাব থেকে এভাবে অর্থ উত্তোলন করে আসছেন। অভিযোগে বলা হয়েছে, গত দুই বছরে বিভিন্ন সময়ে ২০০ ডলার থেকে দুই হাজার ডলার পর্যন্ত বিভিন্ন এটিএম বুথ থেকে উত্তোলন করা হয়। আর শুধু অভিযুক্ত দুই ব্যাংকারই অর্থ উত্তোলন করেননি। তাদের দুই বন্ধুও একইভাবে বিভিন্ন বুথ থেকে তিন লাখ ডলার অর্থ উত্তোলন করেছেন।

এ ধরনের আরও ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে তদন্ত করছে যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। প্রযুক্তি উন্নত হওয়ায় ব্যাংকিং সেবার নিরাপত্তা হুমকিতে পড়েছে দেশটির বড় বড় ব্যাংক।

অর্থনীতি ডেস্ক

এই মাত্রা পাওয়া