১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে কনস্টেবলের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর গুলিস্তানে দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে এক পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু হয়েছে। বাসের ভেতরে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে দুই বন্ধু সোয়া দুই লাখ টাকা খুইয়েছেন। মঙ্গলবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ সব তথ্য জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে এম এ জুলহাস (৩৫) নামে এক পুলিশ কনস্টেবলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তিনি রাজারবাগ পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন। নিহতের বাবার নাম শামছুল হক।

গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানার সিদলাইয়ে। তিনি যাত্রাবাড়ী থানার বিবিরবাগিচায় সপরিবারে থাকেন। তার স্ত্রীর নাম সুমি আক্তার। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছিলেন তিনি। রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের উপ-পরিদর্শক ফারুক হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে গুলিস্তান পানির ফোয়ারার সামনে দুই বাস প্রতিযোগিতার মাঝে পড়ে কনস্টেবল জুলহাস। এ সময় তিনি ওই দুই বাসের মাঝে চাপা পড়েন। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৬টার দিকে কনস্টেবল জুলহাসের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় পুলিশ তার ঘাতক বাস ও তার চালককে আটক করতে পারেনি বলে জানান তিনি।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে শাহবাগ থানার সামনে বাসস্ট্যান্ড থেকে মোশারফ হোসেন (২১) ও মোহাম্মদ রাশেদকে (২২) নামে দুজনকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের বাড়ি রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায়। আহত রাশেদের চাচা বাবলু জানান, মালয়েশিয়া যাওয়ার উদ্দেশে হাতিরপুলে এক এজেন্সিতে টাকা জমা দেয়ার জন্য তারা এসেছিল। গাবতলী থেকে ৭ নম্বর গাড়িতে উঠলে পথেই অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন। শাহবাগে এলে গাড়ির লোকেরা গাড়ি থেকে তাদের নামিয়ে দেয়। পরে পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাদের কাছে মোবাইলের মাধ্যমে খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে আসেন। মোশাররফ ও রাশেদ দুজন বন্ধু। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, দুজনকে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি আছে।