২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারীতে ব্যবসায়ী ও মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

স্টাফ রির্পোটার, নীলফামারী ॥ নীলফামারীতে পৃথক ঘটনায় পুলিশ এক মাদ্রাসা ছাত্রী এবং নিখোঁজ কাঁচামাল ব্যবসায়ী সহ দুই লাশ উদ্ধার করেছে। আজ বুধবার সকালে লাশ দুইটি উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার বিবরনে জানা যায় জেলার কিশোরীগঞ্জ উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের পানিয়ালপুকুর মৌলভীহাট গ্রামের মৃত বাচ্চা মাহমুদের ছেলে কাঁচামালের ব্যবসায়ী খবের আলী (৫৫)। স্বামী নিখোঁজ জানিয়ে ৯ ফেব্রুয়ারী রাতে ওই ব্যবসয়ীর দ্বিতীয় স্ত্রী পারভীন আক্তার থানায় একটি জিডি করেন। এ অবস্থায় আজ বুধবার সকালে খবের আলীর লাশ উদ্ধার করা হয় উপজেলা পরিষদের ডোরমেটরির ভেতর থেকে। কিশোরীগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান লাশের সুরত হাল অনুযায়ী শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের ও গলায় শ্বাসরোধ করে হত্যার চিহৃ পাওয়া গেছে।

অপর ঘটনাটি ঘটে ডিমলা উপজেলার ঝুনাগাছ ইউনিয়নের তিস্তার চর সোনাখুলী গ্রামে। গ্রামের মৃত ঝুমুর আলীর মেয়ে স্থানীয় শালতলা দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী মৌসুমী আক্তার(১২)। সে তার মা তারা বানুর কাছে গাইড বই ও এক সেট নতুন জামা কিনে চায়। কায়িক শ্রমিক মা এসব কিনে দিতে না পারায় মৌসুমী ঘরের ভেতর গলায় দড়ি দিয়ে আতœহত্যা করে। এসব কথা মৌসুমীর ভাই রফিকুল ইসলাম(২৬) লিখিত ভাবে ডিমলা থানায় জানিয়েছে। ডিমলা থানার ওসি রুহুল আমিন খাঁন ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেন।