১৯ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইডেনে ভারত-পাক ফাইনাল দেখতে পাচ্ছেন পিটারসন

ইডেনে ভারত-পাক ফাইনাল দেখতে পাচ্ছেন পিটারসন

অনলাইন ডেস্ক॥ আগামী ৩ এপ্রিল ইডেনে ভারত-পাকিস্তান টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল!

এমন সম্ভাবনাই দেখছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অলরাউন্ডার রবিন পিটারসন।

২০১১-য় ভারতে হওয়া শেষ বিশ্বকাপে যিনি প্রোটিয়াদের শিকারি বোলারদের তালিকায় সবার উপরে ছিলেন, সেই পিটারসন এ বার নিজের দেশকে তেমন নম্বরই দিচ্ছেন না। ‘‘বড়জোর সেমিফাইনাল। দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে এর চেয়ে বেশি আশা করছি না,’’ বলছেন ৩৬ বছর বয়সি তারকা অলরাউন্ডার। যিনি দুবাইয়ে মাস্টার্স চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

উপমহাদেশের উইকেটে ও আবহাওয়ায় যেহেতু সবচেয়ে মানানসই দু’দল ভারত ও পাকিস্তান, তাই এই দুই দলই ফাইনালে মুখোমুখি হবে বলে মনে করেন পিটারসন। বৃহস্পতিবার দুবাই থেকে ফোনে আনন্দবাজারকে বলেন, ‘‘উপমহাদেশের কন্ডিশনে এই দুই দলকে রোখার ক্ষমতা কারও আছে বলে মনে হয় না। দুই দলের বোলিং যথেষ্ট ভাল। আর ওদের যথেষ্ট অলরাউন্ডারও রয়েছে। তাই ফাইনালে আমার ঘোড়া ভারত-পাকিস্তান।’’ তার পর হেসে বললেন, ‘‘ইডেনে ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল হলে নিশ্চয়ই আপনাদের আর কিছু চাই না, কী বলেন?’’

২০১১-র বিশ্বকাপে নাগপুরে শেষ ওভারে আশিস নেহরাকে দুটো বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারি মেরে ভারতকে হারিয়ে নায়ক বনে গিয়েছিলেন যে পিটারসন, তিনি আবার ১৫ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্টের সেরা শিকারিদের তালিকাতেও চার নম্বরে ছিলেন।

কিন্তু নিজের দেশকে কেন এ বার ফেভারিট মানছেন না, এই প্রশ্নে পিটারসনের বক্তব্য, ‘‘আমাদের দলের সবচেয়ে বড় সমস্যা ভাল অলরাউন্ডারের অভাব। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অলরাউন্ডাররাই তফাত গড়ে দেয়। তাই যে দলে ভাল ও বেশি অলরাউন্ডার রয়েছে, তাদের সাফল্যের সম্ভাবনাই বেশি। আমাদের দল সেমিফাইনালের গণ্ডি পেরলে অবাক হব।’’

শুক্রবার মাস্টার্স চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে তাঁর দল লিও লায়ন্স খেলবে গ্রেম স্মিথের ভার্গো সুপারকিঙ্গসের বিরুদ্ধে। এক সপ্তাহ আগেই যাদের কাছে হেরেছেন পিটারসনরা। এ বার বদলা নিতে পারলেই ফাইনালে। শনিবার ফাইনালে উঠলে জেমিনি আরবিয়ান্সের মুখোমুখি হবেন বলেই ধরে রেখেছেন এই বাঁ হাতি স্পিনার। বীরেন্দ্র সহবাগ, কুমার সঙ্গকারা, ব্র্যাড হজ, সাকলিন মুস্তাক, মুরলীধরনদের দল সম্পর্কে বললেন, ‘‘জেমিনি একটা ছোটখাটো বিশ্ব একাদশ নামাচ্ছে। ওরা অপরাজিত। ফাইনালে ওদের হারানো বেশ কঠিন হবে।’’

ক্রোনিয়ে-কেলেঙ্কারির পর ফের দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যাচ গড়াপেটার কালো ছায়া। সম্প্রতি দু’জন প্রাক্তন ক্রিকেটার সে দেশে টি-টোয়েন্টি লিগ র‌্যাম-স্ল্যামে ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়েছেন বলেও খবর। এই নিয়ে উদ্বিগ্ন পিটারসন বলছেন, ‘‘জানি না, ফের কোথা থেকে এই রোগ আবার ঢুকে পড়ল আমাদের দেশে। আমার মনে হয় আমাদের বোর্ড ক্রিকেটে দূর্নীতি দমনের কাজ খুব ভাল ভাবে করে চলেছে। তা সত্ত্বেও এই ছোট খাটো দু-একটা ঘটনা ঘটছে, সেগুলোও ধরা পড়ে যাচ্ছে। আমার মনে হয় পনেরো বছর আগের মতো মতো সেই বিশাল কেলেঙ্কারি আর কখনও হবে না।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

এই মাত্রা পাওয়া