১৬ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিএনপির কালাই থানা ও পৌর বিএনপি’র আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব সংবাদদাদা, জয়পুরহাট ॥ জয়পুরহাট জেলার কালাই থানা ও পৌর বিএনপি’র সদ্য ঘোষিত আহবায়ক কমিটিকে স্বেচ্ছাচারী ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে গঠনের অভিযোগে তা বাতিলের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে কালাই থানা ও পৌর বিএনপি’র একটি গ্রুপ। সাংবাদিক সম্মেলনে এই কমিটিকে জেলা বিএনপির সভাপতির পকেট কমিটি বলে আখ্যায়িত করেছে। জয়পুরহাট প্রেসক্লাবে শুক্রবার সকালে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, গত ৬ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত জেলা বিএনপি’র সভার সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে কালাই থানা ও পৌর বিএনপির আহবায়ক কমিটি স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছাচারীতার মাধ্যমে ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে ঘোষনা করা হয়েছে। সে কারণে সংবাদ সম্মেলনে ঘোষিত আহবায়ক কমিটি প্রত্যাখান করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট্য কালাই থানা ও পৌর আহবায়ক নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে কালাই থানা ও পৌর বিএনপি’র তৃনমুল নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয় চাকুরীর সুবাদে দীর্ঘদিন থেকে সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত একজনকে ও বগুড়ায় স্থায়ীভাবে বসবাসকারী এবং আওয়ামী লীগের সঙ্গে আতাতকারী ইব্রাহিম ফকিরকে কালাই থানা কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। তারা বিএনপিকে ধংসের পাইতারা করছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি স্বীকার করেন যে, সদ্য ঘোষিত কমিটি পাশ করবে জেলা বিএনপি। অপরদিকে স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছাচারীতার মাধ্যমে কমিটি গঠনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা বিএনপি’র সভাপতি মোজাহার আলী প্রধান ও সাধারন সম্পাদক ফজলুর রহমান। দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার কাজে লিপ্ত থাকার কারণে জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মস্তোফার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানানো হয়েছে বলেও জানান মোজাহার আলী প্রধান।