২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চীনে পাড়ি জমাচ্ছেন মেসি, রোনাল্ডো, ইব্রা, রুনি!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গুঞ্জন অনেকদিনের। বিভিন্ন সময়ে শোনা গেছে বর্তমান ঠিকানা পাল্টাতে পারেন লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, জ¬াতান ইব্রাহিমোভিচ, ওয়েন রুনির মতো তারকারা। এক্ষেত্রে একেক সময় ভিন্ন ভিন্ন খবর রটেছে। সর্বশেষ খবর, এসব তারকারা পাড়ি জমাতে পারেন এশিয়ার দেশ চীনের বিভিন্ন ক্লাবে।

এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের সাবেক কোচ গোরান এরিকসন। সম্প্রতি খবর রটেছে বার্সিলোনা ডিফেন্ডার দানিয়েল আলভেজ চীনের ক্লাবে যোগ দেবেন। চীনের সুপার লীগের একটি ক্লাবের সঙ্গে না কি প্রায় কথা পাকাপাকি হয়ে গেছে ব্রাজিলিয়ান তারকারা। এরিকসন জানাচ্ছেন, মেসি, রোনাল্ডো, ইব্রা, রুনিদের লীগে আনতে বেশ মরিয়া সুপার লীগের কর্তারা। এক্ষেত্রে হয়ত সফলও হতে পারে তারা!

শুধু মেসি-রোনাল্ডোরাই নন, চীনে যেতে পারেন চেলসি তারকা অস্কারও। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের উদ্ধৃতিতে জানা গেছে, অস্কারকে পেতে চীনের একটি ক্লাব বড় অঙ্কের প্রস্তাব দিয়েছে। তবে চেলসি ছাড়ার কোন ইচ্ছে নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন ব্রাজিলের এই মিডফিল্ডার। ব্রাজিলের ক্লাব ইন্টারন্যাসিওনাল থেকে ২০১২ সালে ১ কোটি ৯০ লাখ পাউন্ডের চেয়ে কিছুটা বেশি ট্রান্সফার ফিতে অস্কারকে দলে নেয় চেলসি। তাকে পেতে চীনের ক্লাব জিয়াংসু সুনিং ৫ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড খরচ করতে চায় বলে খবর বের হয় সম্প্রতি। এ প্রসঙ্গে সাক্ষাতকারে অস্কার বলেন, আমি এখানে (চেলসি) লম্বা সময় থাকতে চাই। আমি আরও ম্যাচ আর শিরোপা জিততে চাই। কারণ, আমি চেলসিকে ভালবাসি। আমি চেলসির সমর্থকদের ভালবাসি। শহরটি পছন্দ করি আমি। তিনি আরও বলেন, ক্লাব পরিবর্তন করার কোন কারণ নেই আমার। এখানে সবাই আমাকে পছন্দ করে এবং আমি এখানে বেশ সুখে আছি।

ইসরাইলের একটি প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন ক্রিশ্চিয়ানেরা রোনাল্ডো। রিয়াল মাদ্রিদের এই তারকা ফরোয়ার্ডের বিজ্ঞাপনটি দেখার পর অনেক ভক্তই অনলাইনে সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে তাকে বাদ দিয়ে বার্সিলোনা তারকা লিওনেল মেসিকে সমর্থন করার ঘোষণা দিয়েছেন। ইসরায়েলের একটি টেলিভিশন নেটওয়ার্কের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হট ইন্টারনেটের বিজ্ঞাপনে অংশ নেন পর্তুগাল অধিনায়ক।

এতে দেখা যায়, ইসরায়েলের তিন ফুটবলারকে অবাক করে দিয়ে তাদের ড্রেসিংরুমে হাজির হয়েছেন রোনাল্ডো। আর তাদের মধ্যে আলাপচারিতায় বেরিয়ে আসে, হটের ইন্টারনেটের গতি রোনাল্ডোর চেয়েও বেশি। সি আর সেভেন নিজেই তার টুইটার এ্যাকাউন্টে বিজ্ঞাপনটির কথা উল্লেখ করে ভিডিওর লিংক দেন। রোনাল্ডো ইসরাইলের বিজ্ঞাপনে অংশ নেয়ায় ফিলিস্তিন ও আরব বিশ্বে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

এতদিন যারা রোনাল্ডোর ভক্ত ছিলেন, এই ঘটনার পর এখন তারা সমর্থন করছেন মেসিকে!