২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেবরের পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে থানায় ভাবী

দেবরের পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে থানায় ভাবী

অনলাইন ডেস্ক॥ ভারতে এক নারী যৌন নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে দেবরের পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে থানায় হাজির হয়েছে।

মধ্যপ্রদেশের সিধি জেলার চুরহাট এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। তিন সন্তানের জননী ৩২ বছর বয়সী ওই নারীর দাবি, স্বামীর অনুপস্থিতিতে দেবর তাকে ধর্ষণ করায় নিরুপায় হয়েই তিনি একাজ করেছেন।

সন্তানদের নিয়ে কাটা পুরুষাঙ্গ হাতে থানায় ঢুকে ঘটনার বর্ণনায় পুলিশকে ওই নারী বলেন,“স্বামীর বাইরে থাকার সুযোগে দেবর আমাকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেছে। শেষপর্যন্ত আমি কাস্তে দিয়েতার যৌনাঙ্গ কেটে দিয়েছি। তাকে আটকানোর আর কোনও উপায় ছিল না।”

যৌনাঙ্গহীন ওই ব্যক্তির জরুরি চিকিৎসার জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাড়ির পাশের একটি গাছ থেকে তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে।

ওই নারীর স্বামী ৭০০ মাইল দূরে মহারাষ্ট্রের নাসিকে থাকেন। আর তিনি তার দেবরের সঙ্গে চুরহাট এলাকায় থাকতেন বলে জানিয়েছে ‘দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট’।

স্থানীয় গণমাধ্যমকে সিধি এসপি আবিদ খান বলেন, নারীটির বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। “এটি খুবই বিরল ঘটনা। যথাযথ অভিযোগপত্র গঠনের জন্য বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।”

পুলিশ জানায়, ওই নারীর মানসিক অবস্থা সম্পূর্ণ স্থিতিশীল এবং তিনি যা করেছেন তার জন্য একটুও অনুতপ্ত নন।