২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনা ॥ বনভোজন শেষে বাড়ি ফেরা হলো না ৩ বন্ধুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুর সীমান্তের মধুটিলা ইকোপার্কে বনভোজন শেষে বাড়ি ফেরা হলো না বকশীগঞ্জের ৩ বন্ধুর। শুক্রবার সন্ধ্যায় শেরপুর-নন্নী সড়কের টেংরাখালি এলাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছে তাদের প্রাণ। এরা হচ্ছে বকশীগঞ্জ উপজেলার মালিঞ্চ নয়াপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলম (১৬), আসমত আলী (১৫) ও শাহিন মিয়া (১৬)। তারা সবাই শিক্ষার্থী। তবে স্কুল না কলেজের তা জানা যায়নি। শনিবার দুপুরে এলাকায় লাশ পৌঁছলে ৩ বন্ধুর পরিবারে শুরু হয় শোকের মাতম। এ নিয়ে খোদ এলাকাটিতেই নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে বকশীগঞ্জ উপজেলা থেকে একটি ভটভটি ও একটি মোটরসাইকেলে বনভোজন করতে নালিতাবাড়ী উপজেলার মধুটিলা ইকোপার্কে পৌঁছে ২০ জনের একটি দল। বনভোজন শেষে সন্ধ্যা ৬টার দিকে একই মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিল ৪ বন্ধু খোরশেদ আলম, আসমত আলী, শাহিন মিয়া ও জাকির হোসেন (১৭)। পথে উপজেলার টেংরাখালি এলাকায় পৌঁছলে পেছন দিক থেকে বনভোজনের একটি যাত্রীবাহি বাস তাদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেলসহ বাসের সামনেই লুটিয়ে পড়ে খোরশেদ আলম, আসমত আলী ও শাহিন মিয়া। এতে তারা বাসের চাপায় ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায়। অপর বন্ধু জাকির হোসেন ছিটকে সড়কের ঢালে পড়ে প্রাণে বেঁচে যায়। ওই ঘটনায় বিক্ষুব্ধ লোকজন বাসটি আটক করলেও চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩ বন্ধুর লাশ উদ্ধার ও বাসটি আটক করে থানায় নিয়ে যায়। ওই ঘটনায় রাতেই থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রুজু হয়। তবে নিহত ৩ বন্ধুর পরিবারের আবেদনক্রমে শনিবার বিনা ময়নাতদন্তে স্ব-স্ব পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়।