২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাড়ছে অসংক্রামক রোগ

অনলাইন রিপোর্টার ॥ গত কয়েক বছর ধরে অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দেশে ৬১ শতাংশ মানুষ অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত। আর এর কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা দায়ী করছেন খাদ্যাভাস, ধূমপান, প্রক্রিয়াজাত খাবারের প্রসার, বায়ু এবং ধুলা দূষণ, মানসিক চাপ এবং সড়ক দুর্ঘটনার প্রকোপকে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বার্ষিক প্রতিবেদন ও হেলথ বুলেটিন ২০১৫-তে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআই এস) এই বুলেটিন প্রকাশ করেছে। সেখানকার তথ্যে দেখা যায়, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, হৃদরোগের প্রকোপ বেড়েই চলেছে। যেখানে ২০০৯ সালে এই হাসপাতালের বর্হিবিভাগে চিকিৎসা নিয়েছেন ১ লাখ ৬০ হাজার ৮ জন সেখানে ২০১৪ সালে বর্হিবিভাগ থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন ২ লাখ ৫৩৩ জন মানুষ। একই সময়ে এখানে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে অনেক। জাতীয় কিডনি রোগ ইনস্টিটিউট, জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও হাসপাতালেও অসংক্রামক রোগীর সংখ্যা বিগত বছরগুলোর তুলনায় বেশি।

এসিড সার্ভাইভ্যাবল ফাউন্ডেশন, জাতীয় মহিলা সংস্থাসহ মানবাধিকার সংস্থাগুলোর প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এসিড আক্রান্ত ও নারী নির্যাতনের সংখ্যাও দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।

প্রতিবেদনে ক্যান্সার, হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, কিডনি রোগ, স্থায়ী বক্ষব্যাধি, শ্রবণ প্রতিবন্ধিতা, স্নায়ুবিক রোগগুলোকে অসংক্রামক রোগ বলা হয়েছে।