১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বার্সার প্রতিপক্ষ আজ সেল্টা ভিগো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সিলোনা। গত মৌসুমে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছ থেকে শিরোপা ছিনিয়ে আনে লুইস এনরিকের শিষ্যরা। চলতি মৌসুমেও অপ্রতিরোধ্য কাতালান ক্লাব। গত সপ্তাহে কোপা ডেলরের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ড্র করে টানা ২৯ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়ে লুইস এনরিকের দল। সেই কীর্তিটাকে আরও সামনের দিকে নিয়ে যেতে মরিয়া বার্সা। সেক্ষেত্রে তাদের প্রতিপক্ষ আজ সেল্টা ভিগো। ম্যাচটা হবে ন্যু ক্যাম্পে। যে কারণে নিজেদের ভক্ত-অনুরাগীদের সামনে জয়ের বিকল্প ভাবছে না বার্সিলোনা।

এ বিষয়ে বার্সিলোনার স্প্যানিশ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে বলেন, ‘প্রতিযোগিতায় জয়টায় মুখ্য বিষয়।’ আজ সেল্টা ভিগোকে হারাতে পারলে ২০১০-১১ মৌসুমে করা পেপ গার্ডিওলার অপরাজিত থাকার ২৯ ম্যাচের রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যাবে বার্সিলোনা। তবে ইভান রাকিটিচের মতে, রেকর্ড নয় বরং জয়ের দিকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে তারা। বার্সিলোনা যখন অপ্রতিরোধ্য গতিতে ছুটছে তখন নিষ্প্রভই বলা চলে সেল্টা ভিগোর পারফরমেন্সকে। কেননা শেষ ছয় ম্যাচের পাঁচটিতেই জয়বঞ্চিত তারা। তাই সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে আজ স্বাভাবিকভাবেই ফেবারিট হিসেবে কোর্টে নামবে মেসি-সুয়ারেজ-নেইমাররা। তাছাড়া আগের ম্যাচে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ড্র করায় ন্যু ক্যাম্পে আজকের লড়াইয়ে অতিরিক্ত গুরুত্ব দিবে লুইস এনরিকের শিষ্যরা।

দুর্দান্ত ফর্মে থাকা বার্সিলোনা গত সপ্তাহেই কোপা ডেলরের ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করেছে। ফাইনালে এবারও তাদের প্রতিপক্ষ সেভিয়া। বার্সা ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল ভ্যালেন্সিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে। আর সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে সেল্টা ভিগোর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে ফাইনালে উঠল সেভিয়াও। তবে ফাইনাল কোথায় হবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে। বার্নাব্যু অথবা ন্যু ক্যাম্পে হওয়ার কথা কাপের ফাইনাল, কিন্তু সেভিয়া কোচ উনাই এমেরি হুমকি দিয়েছেন, দরকার হলে চীনে যাবেন, তবু ন্যু ক্যাম্পে ফাইনাল খেলবেন না! তবে এ বিষয়ে খুব দ্রুতই সিদ্ধান্ত হবে বলে ধারণা করছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ। যদিওবা বার্সিলোনা চাচ্ছে বড় স্টেডিয়ামেই ফাইনাল খেলতে।

পোলার্ড-নারাইন সরে দাঁড়ালেন

টি২০ বিশ্বকাপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টি২০ বিশ্বকাপ সামনে রেখে উইন্ডিজ ক্রিকেটের ঝামেলাটাকে আরও উস্কে দিলেন কাইরেন পোলার্ড ও সুনিল নারাইন। দুই তারকাই দল থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করেন নিলেন! এমনিতে বিশ্বকাপ প্রাপ্ত অর্থের ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছে উইন্ডিজ বোর্ড (ডব্লিউআইসিবি) ও ড্যারেন সামির নেতৃত্বাধীন জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। এতে মার্চের প্রথম সপ্তাহে ভারতে শুরু হতে যাওয়া টি২০ বিশ্বকাপে ক্যারিবীয় শিবিরে হতাশাই নেমে এল। যদিও বোর্ডের বিবৃতিতে বলা হয়েছে নিজেকে পুরোপুরি ফিট মনে না করায় দল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অলরাউন্ডার পোলার্ড।