২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নাটোরে চোর সন্দেহে তিন স্কুলছাত্রকে লাঠিপেটা ॥ আটক এক

নিজস্ব সংবাদদাতা, নাটোর, ১৩ ফেব্রুয়ারি ॥ বাগাতিপাড়ায় চুরির চেষ্টার অভিযোগে তিন শিশুকে রশি দিয়ে বেঁধে লাঠিপেটাসহ অর্থদণ্ড করেছে বাজার কমিটি। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের মাকুপাড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত দুই শিশুকে বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে আহত শিশু ফিরোজের বাবা সিদ্দিকুর রহমান বাদী হয়ে বাগাতিপাড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে মাকুপাড়া বাজার কমিটির সভাপতি ইমাজ ইদ্দিনকে আটক করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের মাকুপাড়া বাজারে রাত ১২টার দিকে স্থানীয়রা রহমান মার্কেটের পিছন থেকে চোর সন্দেহে পাঁকা গ্রামের রমজানের ছেলে পাঁকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র রুমনকে আটক করে। আটকের পরে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হয়। পরে চুরি করার পরিকল্পনার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে মাকুপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে আইডিয়াল স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র মেহেদী এবং একই গ্রামের সিদ্দিকের ছেলে মাকুপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণীর ছাত্র ফিরোজকেও আটক করা হয়। এ বিষয়ে শুক্রবার বিকেলে মাকুপাড়া বাজার কমিটির উদ্যোগে স্থানীয় মাকুপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে চোর সন্দেহে আটক তিন শিশুকে রশি দিয়ে বেঁধে বেধড়ক লাঠিপেটা করেন বাজার কমিটির সভাপতি ইমাজ এবং সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান পিয়া। এ সময় তারা রুমন ও মেহেদীকে পাঁচ হাজার এবং ফিরোজকে দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

এ বিষয়ে মাকুপাড়া বাজার কমিটির সভাপতি ইমাজ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, চোর সন্দেহে ওই তিন শিশুকে আটক করা হয়। এরপর শুক্রবার বিকেলে সালিশ বৈঠকে তারা চুরি করার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করলে তাদের হালকা মারপিট এবং অর্থদ- করা হয়।

নির্বাচিত সংবাদ