২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পিটার্সবার্গ ওপেনের সেমিতে বেনচিচ, ইভানোভিচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বের একাদশ নাম্বার বেলিন্ডা বেনচিচ। তবে সেন্ট পিটার্সবার্গ ওপেনে সুইজারল্যান্ডের এ তরুণী উঠে গেছেন সেমিফাইনালে। কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি রাশিয়ার আনাস্তাসিয়া পাভলিউচেঙ্কোভাকে ৬-৭ (৭-৪), ৬-৪ ও ৬-২ সেটে পরাজিত করেন। সবমিলিয়ে তার সময় লেগেছে ২ ঘণ্টা ৩২ মিনিট। তিনবারের সাক্ষাতে দ্বিতীয়বার জিতলেন এ ১৮ বছর বয়সী সুইস তরুণী। এবারের আসরে শিরোপা জিততে পারলে প্রথমবারের মতো ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে উঠে আসবেন বেনচিচ। এছাড়া ক্যারিয়ারের তৃতীয় শিরোপাও জেতা হবে তার। এছাড়া সার্বিয়ান তারকা আনা ইভানোভিচ, ইতালির রবার্টা ভিঞ্চি উঠেছেন সেমিফাইনালে। শেষ চারে ইভানোভিচ-ভিঞ্চি এবং বেনচিচ-দারিয়া ক্যাসাতকিনা মুখোমুখি হবেন। এর আগে দুইবার পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছিলেন বেনচিচ-পাভলিউচেঙ্কোভা। দু’জনেই জিতেছিলেন একটি করে ম্যাচ। এবার র্ছিল এগিয়ে যাওয়ার লড়াই এবং এটার মাধ্যমে আসরের সেমিতেও ওঠার সুযোগ। পিটার্সবার্গ ওপেনের শীর্ষ বাছাই হিসেবে এবার অন্যতম ফেবারিট বেনচিচ। কিন্তু ২৬ নাম্বার র‌্যাঙ্কিংধারী পাভলিউচেঙ্কোভার কাছে প্রথম সেটেই হেরে গেছেন তিনি তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর টাইব্রেকে। কিন্তু পরের দুই সেটে ঠিকই জিতে গেছেন বেনচিচ। এমনকি প্রথম সেটে হারের পর দ্বিতীয় সেটে রাশিয়ান সুন্দরীকে কোন পাত্তাই দেননি প্রথমদিকে। এগিয়ে গিয়েছিলেন ৫-১ ব্যবধানে। শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় সেট ৬-৪ ব্যবধানে জিতে ম্যাচে সমতা আনেন। জয়ের পর বেনচিচ বলেন, ‘আজ সম্ভবত পুরো ম্যাচটাই খুব ভয়ঙ্কর ছিল। আমি অনেকগুলো ভুল করেছি। কিন্তু আমি মনে করি এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ খুব খারাপ দিনেও লড়াই করা। যখন নিঁখুতভাবে ভাল খেলা সম্ভব হবে তখন জেতাটা সহজ হয়ে যায়। কিন্তু যখন বেশ পরীক্ষার মধ্যে পড়তে হয় সে সময় জিতে যাওয়াটা অনেক বড় অর্জন।’ এবার পিটার্সবার্গ ওপেনে শিরোপা জিততে পারলে ক্যারিয়ারের তৃতীয় শিরোপা হাতে তুলবেন বেনচিচ।

সেমিফাইনালে বেনচিচ মুখোমুখি হবেন রাশিয়ান কিশোরী দারিয়া ক্যাসাতকিনার বিরুদ্ধে। এ রাশিয়ান উঠতি তারকা বেশ সংগ্রামের মধ্যেই পড়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেøাভাকিয়ার তারকা ডোমিনিকা সিবুলকোভার বিরুদ্ধে জয় তুলে নিয়েছেন ৪-৬, ৭-৫ ও ৬-৩ সেটে। এর ফলে ক্যারিয়ারে মাত্র দ্বিতীয়বারের মতো কোন টুর্নামেন্টের সেমিতে উঠলেন তিনি। এ বিষয়ে পরে ক্যাসাতকিনা বলেন, ‘এটাই আমার ক্যারিয়ারে প্রথমবার যে পিছিয়ে থেকেও ঘুরে দাঁড়ালাম। এত দীর্ঘ কোন ম্যাচ আমি জিতিনি। এ ধরনের সাফল্য সত্যি আমার জন্য অনেক বড় বিষয়। কারণ এখন পর্যন্ত ডব্লিউটিএ আসরে খুবই কম ম্যাচ জিততে পেরেছি আমি।’ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় বাছাই ইতালির রবার্টা ভিঞ্চি কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর টিমিয়া বাবোসকে হারিয়েছেন ৭-৬ (৭-৩), ৪-৬, ৭-৬ (৭-৪) সেটে। বিশ্বের ১৬ নম্বর ভিঞ্চি গত বছর ইউএস ওপেনের রানার্সআপ হয়েছিলেন। কিন্তু ২২ বছর বয়সী বাবোসের কাছে পরীক্ষা দিতে হয়েছে। লড়াইটা ২ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট দীর্ঘস্থায়ী হয়েছে। সেমিতে ভিঞ্চি মুখোমুখি হবেন সার্বিয়ার তারকা আনা ইভানোভিচের। সাবেক বিশ্বসেরা ইভানোভিচ জিতেছেন ইউক্রেনের বাছাই ক্যাটেরাইনা কজলোভার বিরুদ্ধে।