১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বায়ু দূষণে বছরে মারা যায় ৫৫ লাখ মানুষ

বিডিনিউজ ॥ বায়ু দূষণের কারণে প্রতিবছর বিশ্বজুড়ে ৫৫ লাখ মানুষ মারা যায় বলে নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে।

এসব মৃত্যুর ঘটনার বেশিরভাগই চীন ও ভারতের মতো উন্নয়নশীল দেশে ঘটছে। বিদ্যুত কেন্দ্র, কারখানা, যানবাহন বর্জ্য এবং কয়লা ও কাঠ পোড়ানো থেকে ক্ষুদ্র কণার নিঃসরণই এ ধরনের মৃত্যুর জন্য প্রধানত দায়ী। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) গ্লোবাল বারডেন অব ডিজিজ প্রকল্পের অংশ হিসেবে গবেষণাটি করা হয়। গবেষকরা বলেছেন, জীবন রক্ষার জন্য বিশুদ্ধ বায়ু উন্নয়নে কিছু দেশকে কত দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে তা এই গবেষণায় উঠে এসেছে। অন্যতম গবেষক যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনের হেলথ ইফেক্ট ইনস্টিটিউটের ড্যান গ্রিনবাম বিষয়টি ব্যাখ্যা করে বলেন, বেজিং বা দিল্লীতে মারাত্মক বায়ু দূষণের কোন দিনে সূক্ষ্ম কণার (পিএম ২.৫) সংখ্যা প্রতি ঘনমিটারে ৩০০ মাইক্রোগ্রামের চেয়ে বেশি হতে পারে। এই সংখ্যা ২৫ বা ৩৫ মাইক্রোগ্রামের মতো হওয়া উচিত।

ছোট তরল বা বস্তুকণা শ্বাসনালী দিয়ে ভেতরে গেলে হৃদরোগ, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, শ্বাস-প্রশ্বাস যন্ত্রের সমস্যা এবং এমনকি ক্যান্সারের ঝুঁকিও বেড়ে যেতে পারে। গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী অপুষ্টি, স্থূলতা, এ্যালকোহল, মাদকাসক্তি ও অনিরাপদ যৌনচর্চার মতো অন্য ঝুঁকি উপাদানের চেয়ে বায়ু দূষণের কারণে বেশি মৃত্যু হয়। উচ্চ রক্তচাপ, খাদ্যাভ্যাসের ঝুঁকি ও ধূমপানের পর এই ঝুঁকিকে চতুর্থ অবস্থানে রেখেছে গ্লোবাল বারডেন অব ডিজিজ প্রজেক্ট।