২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জয়পুরহাটের কালাইয়ে ইমামপুর-রাধানগর-দেওগ্রাম রাস্তাটির বেহাল দশা

জয়পুরহাটের কালাইয়ে ইমামপুর-রাধানগর-দেওগ্রাম রাস্তাটির বেহাল দশা

নিজস্ব সংবাদদাতা, জয়পুরহাট ॥ জেলার কালাই উপজেলার ইমামপুর-রাধানগর হতে দেওগ্রাম পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় এলাকাবাসীর দুর্ভোগ দিন দিন বেড়েই চলেছে। রাস্তাপির বিভিন্ন স্থান খানাখন্দ থাকায় মারাত্মক দুর্ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে। রাস্তার দু’পাশে রয়েছে ৪টি পুকুর সংলগ্ন থাকায় বিভিন্ন অংশে ভাঙ্গন ধরেছে। ফলে যে কোন সময় রাস্তাটি পুকুর গর্ভে বিলিন হয়ে যাবে।

এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা যায়, বিকল্প কোন রাস্তা না থাকায় উপজেলার ইমামপুর-রাধানগর-দেওগ্রাম রাস্তা দিয়ে পূর্ব দূর্গাপুর, জালাইগাড়ী, ইমামপুর, রাধানগর ও ছোট এলতার অন্তত ৫ হাজার লোক চলাচল করে। কৃষি সমৃদ্ধ এ এলাকায় ৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ২৫টি পুকুর, ১৬টি গরুর খামার অবস্থিত। এসব গ্রামে বিভিন্ন মৌসুমি শাক-সবজি বিশেষ করে আলু, শিম, পটল, করলা, ঝিঙা, চিচিঙ্গা, বেগুন, মুলা, বাঁধাকপি , ফুলকপি, কুমড়া, মিষ্টি কুমড়া, লাউ, লালশাক, পালং শাক, ডাঁটা শাক, কলমি শাক, কচুর লতি, সরিষা প্রচুর পরিমাণে আবাদ হলেও এ রাস্তাটির বেহাল অবস্থার কারনে বহুকষ্টে উৎপাদিত কৃষি পণ্যের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কৃষকরা। বর্ষাকালে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, চাকুরিজীবী, শ্রমজীবীসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষের দুর্ভোগের সীমা থাকেনা। প্রসূতিসহ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের যথাসময়ে হাসপাতালে নেয়া যায়না। ইমামপুরের বাচ্চু মিয়া, রাধানগরের শহিদুল ইসলাম, জালাইগাড়ীর তফিজ উদ্দীন এবং দেওগ্রামের আশরাফ আলী জানান, রাস্তার বেহাল অবস্থার জন্যে তারা উৎপদিত কৃষি পণ্য বাজারজাত করতে নানা সমস্যা হয়। দেওগ্রাম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক মোশারফ হোসেন ফকির, পুনট উচ্চ বিদ্যালয়ের কম্পিউটার শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুস সরদার ও পুনট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আইয়ুব আলী জানান, সকল শ্রেণি পেশার মানুষদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ অবস্থায় রাস্তাটি দ্রুত পাকাকরণের দাবি জানিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে কালাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলনের দৃষ্টি আকর্ষন করলে তিনি রাস্তাটি নির্মানের জন্য প্রয়োজনীয় যোগাযোগ রক্ষা করছেন। এলাকার সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন রাস্তাটি দ্রুত পাকাকরনের পদক্ষেপ নেবেন বলে জানান।