২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশে গণতন্ত্র নিরাপদ নয়- শাহ মোয়াজ্জেম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বর্তমান সরকারের হাতে গণতন্ত্র নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন অভিযোগ করেন এ সরকার চলছে বিদেশি প্রভুদের ইঙ্গিতে। রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘আশির দশকের ১০১ ছাত্র নেতা’ আয়োজিত ‘স্বাধীনতা ও রুগ্ন গণতন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ অভিযোগ করেন ।

শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, দেশে বিরোধী মতের দলকে কথা বলতে দেওয়া হয় না। সরকারের বিরুদ্ধে কথা বললেই জেল-জুলুম নেমে আসে। দেশ চলছে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থায়। ২ বছর আগে ভোটারবিহীন নির্বাচন হয়েছে। বিদেশিরাও বলেছেন মানুষ ভোট দিতে পারেনি বা ভোটকেন্দ্রে যায়নি। এটাকে নির্বাচন বলা যায় না। তাই অবিলম্বে সবার অংশগ্রহণে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি। নিজের মৃত্যু কামনা করে তিনি বলেন, ‘আমি এমন দেশে বাঁচতে চাই না, যে দেশে ইসলাম ধর্মের আলোচনা করতেও পুলিশের প্রয়োজন হয়।’ তিনি বলেন, দেশের গণতন্ত্র এখন ইনটেনটিভ কেয়ারে আছে।

শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, যেভাবেই হোক, যত কষ্টই হোক বিএনপির কাউন্সিল হবেই।খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহ মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ মামলা বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নয়, মামলা হওয়া উচিৎ ছিল যারা বিডিআর হত্যার মত জঘণ্য হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ছিল তাদের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, যে আইনজীবী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করেছে তিনি সঠিকভাবে রাষ্ট্রদ্রোহ লিখতে পারবে না।

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, এদের দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। কার নির্দেশে এরা দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে? এতে দেশে গৃহযুদ্ধ, হানাহানি লেগে যেতে পারে।

সাবেক ছাত্রদল নেতা সরওয়ার আজম খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, রফিকুল ইসলাম, ড.নজরুল হক , আবু তাহের তালুকদার, সাইফুদ্দিন খাঁন, আশরাফ উদ্দীন বকুল প্রমুখ।