১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মা-শিশু সন্তানসহ ছয় লাশ উদ্ধার

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বান্দরবানে মা ও শিশুসন্তান, ময়মনসিংহ ও নীলফামারীতে দুই গৃহবধূ, বগুড়ায় ফোন কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউশন কর্মকর্তা, কচুয়ায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের-

বান্দরবান ॥ নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় শিশুসন্তানসহ মায়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন রেহেনা বেগম ও তার শিশুসন্তান নাজনীন। জানা গেছে, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারী ইউনিয়নের আলিক্ষ্যং এলাকার একটি পাহাড়ী ঝিড়ি থেকে রবিবার দুপুরে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে। পারিবারিক কলহের জের ধরে শিশুসন্তানকে নিয়ে রেহেনা বেগম আত্মহত্যা করেন, পুলিশ রেহেনার বাসা থেকে বিষের শিশি উদ্ধার করে।

ময়মনসিংহ ॥ পুলিশ রবিবার সকালে তারাকান্দা থানার রামপুর গ্রাম থেকে আয়েশা বেগম নামে এক গৃহবধূর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে। আয়েশা গত বৃহস্পতিবার থেকে নিখোঁজ ছিল। পুলিশ সতীন শিল্পী আক্তারের বাড়ির পেছন থেকে মাটি খুঁড়ে আয়েশার বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পুলিশ সতীন শিল্পী আক্তার ও স্বামী রামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মানিক মাস্টারকে আটক করেছে।

নীলফামারী ॥ ভালবাসা দিবসে জলঢাকা উপজেলার কাঁঠালী ইউনিয়নের উত্তর দেশীবাই গ্রামে তিন সন্তানের জননী গৃহবধূ জাহিদা বেগমকে হত্যার পর লাশ দড়িতে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার দুপুরে জলঢাকা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর গৃহবধূর স্বামী ছাইদার রহমান পলাতক রয়েছে। এলাকাবাসী জানান, গত দুই দিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ সৃষ্টি হয়। শনিবার রাতে জাহিদাকে শারীরিক নির্যাতন করে স্বামী ছাইদার রহমান। এরপর রবিবার সকালে ওই গৃহবধূর লাশ ঘরের ভেতর গলায় দড়িতে ঝুলতে দেখা যায়।

বগুড়া ॥ রবিবার সকালে শাজাহানপুর উপজেলায় করতোয়া নদী থেকে মামুনুর রশিদ মানিক নামে এক ব্যক্তির বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার হয়েছে। তিনি গ্রামীণফোনের একটি ডিস্ট্রিবিউশন প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় কর্মকর্তা ছিলেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মামুনুর রশিদ গ্রামীণফোনের ডিস্ট্রিবিউশন প্রতিষ্ঠান, ফার্স্ট ডিস্ট্রিবিউশন নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সেলস এক্সিকিউটিভ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। শনিবার দুপুরে মোটরসাইকেল নিয়ে শাজাহানপুরে প্রতিষ্ঠানের কাজে যান। তার কাছে লক্ষাধিক টাকা ছিল। সেখান থেকে তিনি নিখোঁজ হন। রবিবার সকালে উপজেলার দুবলাগাড়ি এলাকায় করতোয়া নদী থেকে তার বস্তাবন্দী লাশ পাওয়া যায়।

কচুয়া ॥ গোলাম রাব্বি নামে এসএসসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। রবিবার কাদলা ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের প্রবাসী আরিফ প্রধানের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী গোলাম রাব্বির লাশ ওই গ্রামের আঃ হকের বাড়ির পার্শ্ববর্তী আলুক্ষেত থেকে উদ্ধার করা হয়। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গোলাম রাব্বি শনিবার রাত ৮টায় চা খাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি।