২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তালাকনামায় স্বাক্ষর না করায়-

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ, ১৪ ফেব্রুয়ারি ॥ পাকুন্দিয়া উপজেলায় তালাকনামায় স্বাক্ষর না করায় গৃহবধূ হালিমা খাতুনকে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে। শনিবার রাতে চরপাড়াতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে নির্যাতিত ওই গৃহবধূ পাকুন্দিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। একাধিক সূত্র জানায়, নয় মাস আগে উপজেলার চরপাড়াতলা গ্রামের মৃত আবদুল হেমিকের ছেলে আবদুল আউয়ালের সঙ্গে স্থানীয় শ্রীরামদী গ্রামের সাফির উদ্দিনের মেয়ে হালিমা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর স্বামী তার স্ত্রীকে বাবার কাছ থেকে নগদ টাকা এনে দিতে অত্যাচার নির্যাতন শুরু করে। সম্প্রতি গৃহবধূকে হত্যার জন্য তার স্বামী পানির পাত্রে বিষ মিশিয়ে রাখে। স্ত্রী বুঝতে পেরে প্রতিবাদ করলে স্বামী এতে চরম ক্ষিপ্ত হয়। এর জেরে শনিবার রাতে স্বামী আবদুল আউয়াল ও তার ছোট ভাই কাঞ্চনসহ অন্যরা ওই গৃহবধূকে ঘরে আটক করে তালাকনামায় স্বাক্ষর করতে বলে। এতে গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় স্বামী ও দেবর তাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।