২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আই লাভ ইউ টুউউ

সমুদ্র হক ॥ আই লাভ ইউ....আই লাভ ইউ টুউউ....। একবিংশ শতকের প্রজন্ম যে মেধা ও প্রযুক্তির সমন্বয়ে কতভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তার প্রমাণ মিলল এবারের ভ্যালেন্টাইন ডেতে। এই প্রজন্মের সাফ কথা- ভ্যালেন্টাইন শব্দ দিয়ে কেন! নিজের মতো করে দিনটি সাজিয়ে উদযাপন করবে। ভালবাসা দিবসকে ভালবাসা দিয়ে সাজিয়ে হৃদয়ের মানব-মানবী একে অপরকে ‘আই লাভ ইউ’ বলার সঙ্গে পাল্টা উত্তর মেলে আই লাভ ইউ টুউ...।

বগুড়া শহরের প্রজন্মের এমন কথা পথে ঘাটে বাতাসে মিশে যাওয়ার সঙ্গে পথচারী সাধারণ মানুষ নিজের অজান্তেই পরিচিত কাউকে দেখলে, চেনা মানুষের মুখোমুখি হলে, কেউ মোবাইল ফোনে, কেউ সেল ফোনের ক্ষুদে বার্তায় ওই বাক্যগুলো বলতে ও লিখতে থাকে। এভাবে দিনভর পথে ঘাটে মাঠে একটি বাক্য উচ্চারিত হতে থাকে আই লাভ ইউ টুউউ...।

বগুড়া এ্যাডওয়ার্ড পার্কে ও সরকারী আযীযুল হক কলেজের বই মেলায় ইংরেজী এই বাক্যকে বাংলায় বলা শুরু হয়। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ লিখেছেন, সহজ কথা যায় না বলা সহজে..... বর্তমান প্রজন্ম আমি তোমাকে ভালবাসি এই সহজ কথাটি সহজভাবে বলতে শিখেছে। ভাষা আন্দোলনের মাসকে সম্মান জানিয়ে ‘আমি তোমাকে ভালবাসি উত্তরে আমি তোমাকে ভীষন ভীষন ভালবাসি ভালবাসি কথার যেন প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে যায়। এই প্রজন্ম যে কতটা অগ্রগামী (ফার্স্ট) তার প্রমাণও তারা দিল এভাবে- প্রেয়সীর কবরীতে (খোঁপা) ফুল গুঁজে দেয়ার সময় মিষ্টি করে বলা হয় ‘সুনয়না! আমি তোমাকে ভালবসি। পাল্টা উত্তর আমিও তোমাকে কত যে....।’

কপোত-কপোতীদের এমনই মধুময় কথায় অপার রোমান্টিকতায় দিনভর শহরের পথঘাট যেন নেচে ওঠে। এ্যাডওয়ার্ড পার্কের আ¤্রকুঞ্জে দেখা গেল সখাদের নিয়ে সখীরা কি না প্রণয়ে মেতে উঠেছে। সেখানেও কথা- আই লাভ ইউ টুউউ...।