২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বেগম জিয়ার আবেদন আপীল বিভাগেও খারিজ

  • এতিমের টাকা আত্মসাত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাদীর সাক্ষ্য বাতিল চেয়ে নতুন করে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আপীল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপীল বিভাগ রবিবার এ আদেশ প্রদান করেছে। এ সময় আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী। আর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

আদেশের পর দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জনকণ্ঠকে বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাদীর সাক্ষ্য বাতিল করে ফের নতুন সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ২০১৫ সালের ১৪ জুন হাইকোর্টে ফৌজদারি রিভিশন আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়া। হাইকোর্টে এ আবেদন ২৯ জুন খারিজের পর আপীলে যান খালেদা জিয়া। রবিবার এ আবেদনও খারিজ করে দেয় আপীল বিভাগ।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টে অনিয়মের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় এ মামলা দায়ের করে দুদক। এতিমদের সহায়তার জন্য একটি বিদেশী ব্যাংক থেকে আসা ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয় ওই মামলায়। খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৫ আগস্ট এ মামলার অভিযোগপত্র দেন তদন্ত কর্মকর্তা। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে তাদের বিচার শুরু হয়। বার বার তাগিদ দেয়ার পরও জামিনে থাকা খালেদা নির্ধারিত দিনে আদালতে না আসায় পাঁচ দিন তার অনুপস্থিতিতেই বাদীর সাক্ষ্য শোনে আদালত। গতবছর ১৮ জুলাই খালেদার উপস্থিতিতে শুনানির পর বিচারক বাদীকে আসামিপক্ষের জেরার জন্য দিন ঠিক করে দিলেও তা আটকে যায় খালেদা উচ্চ আদালতে যাওয়ায়।