২১ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পরিবেশ দূষণ ॥ গাইবান্ধায় অবৈধভাবে ক্রুড ওয়েল বিক্রি

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা॥ গাইবান্ধার পেট্রোল পাম্প ও তেল ডিপোগুলো থেকে অবৈধভাবে অপরিশোধিত ক্রুড ওয়েল বা কনডেনসেট বিক্রয় হচ্ছে। এতে যানবাহনগুলো থেকে নির্গত অত্যান্ত কালো ধোঁয়া পরিবেশকে মারাত্মকভাবে দূষিত হচ্ছে। এছাড়া কনডেনসেট ব্যবহার করার ফলে যানবাহনগুলোর ইঞ্জিন দ্রুত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তদুপরি স্বল্পমূল্যে কনডেনসেট বিক্রয় বৃদ্ধির ফলে পাম্পগুলো থেকে পেট্রোল বিক্রি ব্যাপকভাবে হ্রাস পেয়েছে।

জানা গেছে, দেশের গ্যাস ফিল্ডগুলো থেকে গ্যাসের সাথে সাথে শতকরা ২৫ ভাগ ক্রুড ওয়েল বা কনডেনসেট উত্তোলিত হচ্ছে। নিয়মানুযায়ি গ্যাস ফিল্ডের এ সমস্ত ক্রুড ওয়েল রিফাইনারিতে পরিশোধিত করে তা বাজারজাত করার জন্য বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের কাছে বিক্রির করার কথা। কিন্তু তা না করে গ্যাস ফিল্ড থেকেই অবৈধভাবে পেট্রোল ব্যবসায়িদের কাছে তা বিক্রি করে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া আমদানি কারক এবং দেশের ১৭টি বেসরকারি রিফাইনারি ক্রুড ওয়েল সংগ্রহ করে তা পরিশোধিত না করেই পেট্রোল পাম্পগুলোর কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে। যেহেতু এক লিটার পেট্রোল বিক্রি করে পেট্রোল পাম্পগুলো যেখানে মাত্র ২ টাকা ৫০ পয়সা লাভ করতে পারে। সেখানে এক লিটার ক্রুড ওয়েল বিক্রি করে লাভ হচ্ছে ২০ টাকা। অধিক লাভের কারণে পেট্রোল পাম্প, ডিপোগুলো এবং খোলা বাজারের পেট্রোল বিক্রেতারা উল্লেখযোগ্য হারে ক্রুড ওয়েল সংগ্রহ করে বিক্রয় করছে।