১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মালয়েশিয়ায় স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক পর্যটন সেবা দিবে গ্রামীণফোন

দেশের শীর্ষস্থানীয় মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা এখন থেকে মালয়েশিয়া ভ্রমণে স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক পর্যটন সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। গ্রাহকদের এ সেবা দিতে মালয়েশিয়ার টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ডিজি নেটওয়ার্ক ও মালয়েশিয়ার হেলথকেয়ার ট্রাভেল কাউন্সিলের (এমএইচটিসি) সঙ্গে আলাদাভাবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে গ্রামীণফোন, জিডি এ্যাসিস্ট (গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান) এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রতিষ্ঠিত এমএইচটিসি মালয়েশিয়াকে এশিয়ার স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক পর্যটন গন্তব্যে পরিণত করতে দেশটির আতিথেয়তা ও উদ্ভাবনী চিকিৎসা ব্যবস্থাকে এক সঙ্গে উপস্থাপন করছে। বাংলাদেশে গ্রাহকদের জন্য এ ধরনের সুবিধা প্রথমবারের মতো নিয়ে এসেছে গ্রামীণফোন। এ সুবিধা পাওয়ার জন্য গ্রাহককে প্রথমেই জিডি এ্যাসিস্ট অফিসে গিয়ে তালিকাভুক্ত হতে হবে। এ চুক্তির অধীনে গ্রাহকরা দু’ধরনের প্যাকেজ নিতে পারবেন। এর মধ্যে ৮শ’ মার্কিন ডলারে পাবেন পাঁচ তারকা হোটেল ও ৬শ’ ডলারের প্যাকেজে পাবেন চার তারকা হোটেলে থাকার সুবিধা। প্রথম ও দ্বিতীয় প্যাকেজে গ্রাহকরা যথাক্রমে দু’জন দু’রাত পাঁচ তারকা ও চার তারকা হোটেলে থাকতে পারবেন। এছাড়াও গ্রামীণফোনের আন্তর্জাতিক রোমিং সেবা ব্যবহারকারী গ্রাহকরা মালয়েশিয়ায় থাকাকালীন ডিজির মার্চেন্ট রিওয়ার্ড অফার উপভোগ করতে পারবেন। যেসব গ্রাহক এ সুবিধা নিবেন তাদের সেবাটি পেতে ডিজি নেটওয়ার্কের মোবাইল স্ক্রিনটি সংশ্লিষ্ট দোকানে দেখাতে হবে। এছাড়াও এ গ্রাহকরা ডিজি নেটওয়ার্কের সঙ্গে রোমিং করা অবস্থায় কথা বলা ও ইন্টারনেট ব্যবহারে ৫০ শতাংশ ছাড় উপভোগ করতে পারবেন। গ্রামীণফোন, জিডি এ্যাসিস্ট এবং বিমানের কর্মীগণও এই প্যাকেজগুলো ব্যবহার করতে পারবেন। -বিজ্ঞপ্তি।

যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি বেড়েছে ১১ শতাংশ

যুক্তরাষ্ট্রে জিএসপি সুবিধা না থাকা সত্ত্বেও ২০১৫ সালে সারা বিশ্বে ২ হাজার ৬৬০ কোটি ডলারের গার্মেন্টস পণ্য রফতানি করেছে বাংলাদেশ। যুক্তরাষ্ট্রের গার্মেন্টস শিল্পসংশ্লিষ্ট বাণিজ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, গেল বছর যুক্তরাষ্ট্রে এ দেশের ৫৪০ কোটি ডলারের গার্মেন্টস পণ্য রফতানি হয়েছে, যা বাংলাদেশের মোট আরএমজির ২০ শতাংশ। ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে রফতানি হয়েছিল ৪৮৩ কোটি ডলারের গার্মেন্টস পণ্য। অর্থাৎ গার্মেন্টস পণ্য রফতানি ১১ দশমিক ৭ শতাংশ বেড়েছে, যা ২০১১ সালের পর সর্বোচ্চ। দেশের গার্মেন্টস শিল্পকে এগিয়ে নিতে নিরাপত্তা ও শ্রমিক স্বার্থে যেসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সেজন্যই এ খাত ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বলে মনে করছেন পোশাক শিল্প মালিকরা। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

নেত্রকোনায় স্বাবলম্বীর কার্যক্রম পরিদর্শনে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত

বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জোহান ফ্রিসেল সোমবার নেত্রকোনার বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন। তিনি বিকেল সাড়ে তিনটায় সড়কপথে জেলা শহরের শিবগঞ্জ রোডে অবস্থিত স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির কার্যালয়ে যান। এ সময় সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বেগম রোকেয়াসহ সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। বিকাল চারটায় তিনি সংস্থার সম্মেলন কক্ষে অধিকার ও সুশাসন কর্মসূচীর বিভিন্ন কার্যক্রমের অংশীজন, সাংবাদিক, শিক্ষক, কাজী, ইমাম, মানবাধিকার কর্মী ও আইনজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় সুইডেন দূতাবাসের কাউন্সিলর মিয়া হেলেন, ফার্স্ট সেক্রেটারি মারসিলা লিজানা, প্রোগ্রাম অফিসার নাজনীন আক্তার এবং স্থানীয় এনডিসি প্রণয় চাকমা উপস্থিত ছিলেন। -নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা