১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্যারিসে পিএসজি-চেলসি লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই মাসের বিরতির পর ফের শুরু হতে যাচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের আসর। এবার শুরু হচ্ছে নকআউট পর্বের লড়াই। আজ রাতে শেষ ষোলোর ম্যাচে মাঠে নামছে চার দল। ২০১৫-১৬ মৌসুমের এই লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী দল প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন ও চেলসি এবং বেনফিকা ও জেনিট সেইন্ট পিটার্সবার্গ।

প্যারিসে মুখোমুখি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ম্যাচে জয়ের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে চেলসি ও পিএসজি দু’দলই। ফরাসী চ্যাম্পিয়ন্স পিএসজি সব ধরনের ফুটবলেই আছে তুখোড় ফর্মে। অন্যদিকে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন চেলসি বাজে সময় পার করলেও ইপিএলের সবশেষ ম্যাচে বিশাল জয় পেয়েছে। এই জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামছে ব্লুজরা। ব্রাজিলিয়ান তারকা ডেভিড লুইজ মনে করছেন এবারের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জিতবে তার ক্লাব পিএসজি। সাক্ষাতকারে তারকা এই ডিফেন্ডার বলেন, অবশ্যই আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জিততে চাই। আমাদের বিশ্বসেরা কিছু খেলোয়াড় এবং বিশ্বসেরা কোচ আছেন। তাই নকআউট পর্বে যে কোন দলের বিপক্ষেই আমরা জয় পেতে চাই। ক্লাবের জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। আর আমরা সঠিক পথেই এগিয়ে চলেছি। লুইজ আরও বলেন, গত বছর আমরা বার্সার বিপক্ষে লড়েছি। যদি আমরা সব ফুটবলারকে একসঙ্গে দলে পেতাম সেবার ফল অন্য হতেও পারত। কখনও কখনও ইনজুরিতে দলের সেরা খেলোয়াড়দের পাওয়া যাচ্ছে না, আবার কখনও নিষেধাজ্ঞা বা শতভাগ ফিট না থাকার জন্য দলের মূল্যবান খেলোয়াড়দের একসঙ্গে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে এবার আমরা সঠিক পথেই আছি। তিনি আরও বলেন, আমি দলের সাফল্যে বিশ্বাস করি, দলকে বিশ্বাস করি, দলের দর্শনকে বিশ্বাস করি এবং দলের কোচকে বিশ্বাস করি। এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের আসরে ভাল কিছুর অপেক্ষায় আছি। আমরা শিরোপা নিয়ে ভাবতেও শুরু করেছি। ধাপে ধাপে এগিয়ে আর নিজেদের উন্নতির মধ্য দিয়ে শিরোপা জেতা সম্ভব আমাদের। বুধবার মাঠে নামছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের প্রতিপক্ষ ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমা। এরপর ২৩ ফেব্রুয়ারি দুটি বড় ম্যাচে মুখোমুখি হবে আর্সেনাল-বার্সিলোনা ও জুভেন্টাস-বেয়ার্ন মিউনিখ। অর্থাৎ নকআউট পর্বের শুরুতেই জম্পেশ লড়াই উপভোগ করার সুযোগ পাচ্ছে ফুটবলবিশ্ব। গত ডিসেম্বরের মধ্যভাগে শেষ ষোলোর ড্রর পর বিষয়টি নিশ্চিত হয়। সুইজারল্যান্ডের নিওনে ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরের প্রি কোয়ার্টার ফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ম্যানচেস্টার সিটির তেমন দুশ্চিন্তার তেমন কারণ নেই। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের অন্যতম শক্তিশালী দলটিকে খেলতে হবে ইউক্রেনের ডায়নামো কিয়েভের বিপক্ষে। এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ খেলবে হল্যান্ডের পিএসভি আইন্দহোভের সঙ্গে। ইংলিশ ও ফরাসী চ্যাম্পিয়ন চেলসি আর প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের লড়াই উপভোগ্য হবে মনে করছেন ফুটবল সংশ্লিষ্টরা। স্পেনের সফল দুই দল বার্সিলোনা ও রিয়ালই শুধু এবারের গ্রুপ পর্বে অপরাজিত থাকে। ছয় ম্যাচে ৫ জয় ও একটিতে ড্র করে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে থাকে রাফায়েল বেনিতেজের রিয়াল। তবে লা লিগায় ব্যর্থতার কারণে ইতোমধ্যে কোচ পদ থেকে ছাঁটাই হয়েছেন বেনিতেজ। রিয়ালের কোচ হয়েছেন জিনেদিন জিদান।

দ্বিতীয় পর্বে রিয়ালের প্রতিপক্ষ রোমা ‘ই’ গ্রুপ থেকে বার্সার পেছনে থেকে কোনমতে নকআউটের টিকেট পায়। ৬ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ছিল মাত্র ৬। ‘ই’ গ্রুপের সেরা বার্সিলোনা ছয় ম্যাচের চারটিতেই জয় পায়, অন্য দুই ম্যাচ ড্র করে তারা। আর্সেনালের টুর্নামেন্টের শুরুটা ভাল না হলেও শেষ দুই ম্যাচে জ্বলে ওঠে তারা। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে দুর্দান্ত এক জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে ‘এফ’ গ্রুপের দ্বিতীয় হয়ে সেরা ষোলোর টিকেট পায় গানার্সরা। কঠিন প্রতিপক্ষ পেয়েছে গতবারের রানার্সআপ জুভেন্টাস। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন বেয়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে খেলবে ইতালির চ্যাম্পিয়নরা।