২০ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিটির হারের দিনে লিভারপুলের গোলোৎসব

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে আবারও ধাক্কা খেল ম্যানচেস্টার সিটি। রবিবার টটেনহ্যাম হটস্পারের কাছে ২-১ গোলে হারল তারা। যে কারণে শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে আরও পিছিয়ে গেল ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির শিষ্যরা। তবে সিটির এই হারের দিনে গোলোৎসব করেছে লিভারপুল। জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা এদিন ৬-০ গোলে রীতিমতো উড়িয়েই দিয়েছে এ্যাস্টন ভিল্লাকে।

নিজেদের মাঠ ইত্তিহাদে অবশ্য প্রথমার্ধে কোন দলই গোলের দেখা পায়নি। বিরতির পর ৫৩ মিনিটে টটেনহ্যাম হটস্পারকে গোল উপহার দেন রাহিম স্টার্লিং। ডি বক্স সীমানার বাঁপ্রান্তে ডিফেন্ডার ড্যানি রসকে ট্যাকল করে বিপদ ঢেকে আনেন এ ইংলিশ উইঙ্গার। স্পট কিক থেকে সফরকারীদের লিড এনে দেন স্টার্লিংয়েরই স্বদেশী স্ট্রাইকার হ্যারি কেন। নাইজিরিয়ান তরুণ স্ট্রাইকার কেলেচি ইহেনাচোর করা ৭৪ মিনিটের গোলের সৌজন্যে দ্রুতই সমতায় ফিরে স্বাগতিকরা। কিন্তু এর ৯ মিনিট পরই সিটিজেনদের দুঃস্বপ্ন উপহার দেন ড্যানিশ মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান এরিকসন। যাকে গোল করাতে সহায়তা করেন আর্জেন্টাইন তারকা এরিক লামেলা। এরপর ম্যাচে ফিরতে মরিয়া স্বাগতিকরা কয়েকটি আক্রমণ করলেও টটেনহ্যামের রক্ষণভাগ আর ভাঙতে পারেনি। যে কারণে শেষপর্যন্ত ২-১ গোলেই ম্যাচের নিষ্পত্তি ঘটে। প্রায় ৫৫ হাজার দর্শকের সামনে মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়তে হয় এ্যাগুয়েরো-স্টার্লিংদের। টটেনহ্যামের কাছে হারায় পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে অবস্থান করছে সিটিজেনরা। ২৬ ম্যাচ শেষে ১৪ জয়, পাঁচ ড্র আর বাকি সাত ম্যাচে হেরেছে তারা। ম্যানচেস্টার সিটির সংগ্রহে ৪৭ পয়েন্ট।

দিনের অন্য ম্যাচে এ্যাস্টন ভিলাকে তাদের মাঠেই বিধ্বস্ত করেছে লিভারপুল। জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা এদিন ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয় এ্যাস্টন ভিল্লাকে। প্রতিপক্ষের মাঠে গোলোৎসবের শুরুটা করেন ইংলিশ স্ট্রাইকার ড্যানিয়েল স্টারিজ। আর স্বাগতিকদের জালে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন আইভরিকোস্ট ডিফেন্ডার কোলো তোরে। এ ম্যাচ দিয়েই অলরেডদের শুরুর একাদশে ফেরেন স্টারিজ।

জয়ের ধারায় বেয়ার্ন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জয়ে ফিরেছে বেয়ার্ন মিউনিখ। বেয়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্রয়ের হতাশা ভুলে বুন্দেসলিগায় আবারও স্বরূপে পেপ গার্ডিওলার দল। রবিবার মুলার-লেভানডস্কির অসাধারণ নৈপুণ্যে অগসবার্গের মাঠ থেকে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে ঘরে ফেরে বেভারিয়ানরা। এর ফলে পয়েন্ট টেবিলে ৮ পয়েন্টের লিড নিল বেয়ার্ন। সমান ২১ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ট। মৌসুম শেষ হতে এখনও ১৩টি করে ম্যাচ বাকি।

এসজিএল এ্যারেনায় জোড়া গোলের উল্লাসে মাতেন লেভানডস্কি। এতেই চলতি মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে নিজের গোলসংখ্যাটা ৩১ এ নিয়ে গেছেন পোলিশ স্ট্রাইকার। ম্যাচের ১৫ ও ৬২ মিনিটে তিনি গোল দুটি করেন। প্রথমটিতে টমাস মুলার ও পরের গোল করতে তাকে সহায়তা করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার থিয়াগো আলকানতারা। নির্ধারিত সময়ের ১২ মিনিট আগে মুলার নিজেই গোলের খাতায় নাম লেখান। এর ছয় মিনিট পর স্বাগতিকদের হয়ে সান্ত¡নাসূচক গোলটি করেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার রাউল বোবাদিলা। ম্যাচ শেষে তাই প্রত্যাশিত জয়ের উচ্ছ্বাস নিয়েই মাঠ ছাড়েন পেপ গার্ডিওলার শিষ্যরা।